Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Satoshi price usd | ১ সাতোশি কয়েনের মূল্য কত টাকা?

একজন কিশোর একজন কিশোরী যখন বড় হয় তখন তাদের মাঝে স্বপ্ন থাকে একজন কিশোরী ভাবে কিভাবে একজন ভালো ছেলেকে বিয়ে করা যায়? আবার একজন কিশোরের চিন্তা থাকে একটু বড় হয়ে ভালো একজন মেয়েকে কিভাবে বিয়ে করা যায়? একটি পর্যায়ে তাদের বিয়ে হয়ে যায় এরপর তাদের একটি স্বপ্ন থাকে ছেলে হোক কিংবা মেয়ে হোক তাদের সন্তান হবে যখন সন্তান হয় তারপরে চিন্তা আসে ভালোভাবে সেই সন্তানকে কিভাবে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে বড় করে তোলা যায়? ওই সন্তান আবার বড় হয়ে যখন ওঠে ঐ সন্তান আবার বড় হয়ে যায় তখন বাপ-মার চিন্তা থাকে ওই সন্তানদেরকে ভবিষ্যৎ গড়ে দেওয়া এরপর চিন্তা থাকে বৃদ্ধ বয়সে সন্তান থেকে খাওয়া-দাওয়াসহ চিকিৎসা যাবতীয় খরচ পাওয়ার। (How to Satoshi BTCs)






কথা গুলো ঠিক বললাম তো? এরকমটাই কিন্তু এখন হয়েছে যখন একটি মানুষ চিন্তা করে যে সে স্মার্ট হবে সবার আগে এ যুগে চলে আসে একটি স্মার্টফোনের কথা যখন একটি স্মার্টফোন একটি ছেলে কিংবা একটি মেয়ে হাতে নেয় তখন চিন্তা থাকে সেই ইন্টারনেট খরচ টা কিভাবে উঠানো যায় কিংবা কথা বলার খরচটা কিভাবে উঠানো যায় আবার অনেকে খরচগুলো ওঠানোর চেষ্টা করে যায় এই ভাবনা থেকে সর্বপথমে চলে আসে মাথায় অনলাইন থেকে কিভাবে টাকাগুলো উপার্জন করা যায়।

সেই স্বপ্ন যখন পূরণ হয়ে যায় এরপর চিন্তা আসে কিভাবে অনলাইনে ক্যারিয়ার গঠন করা যায় আর যখন অনলাইনে একজন মানুষের ক্যারিয়ার তৈরি হয়ে যায় তখন তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয় না যাইহোক এরকমই কিন্তু বিষয়টা তৈরি হয়েছে এখন অনেকেই কিন্তু Satoshi BTCs অ্যাপ্লিকেশনে টাকা ইনকাম করার আশায় অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন প্রায় এক বছরের মতো সময় হয়ে গিয়েছে ফ্রিতে মাইনিং করে যাচ্ছেন মোবাইল দিয়ে অনেকেই এখন সেই ইনকামের মাইনিং গুলোকে টাকা তে রূপান্তরিত করার স্বপ্ন দেখছেন অনেকেই কিন্তু সেটি কিভাবে বাস্তবায়িত হবে সেই প্রশ্ন এখন অনেকের মনেই রয়েছে।

কারণ গাছে যখন ফুল আসে তখনই কিন্তু মানুষ ফলের আশা করতে পারে ঠিক ওরকমই এখন কিন্তু অনেক দিন হয়ে গিয়েছে মানুষ ফ্রিতে মাইনিং করতেছে এখন সে মাইনিং গুলো কিভাবে টাকা তে রুপান্তরিত করবে সেই চিন্তায় কিন্তু এখন অনেক মানুষ চিন্তিত রয়েছেন তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি দারুন ভাবে সহযোগিতা করবে ইনশাআল্লাহ।

আজকে আপনাদের জানাতে চলেছি ১টি Satoshi BTCs Coin = কত টাকা বিক্রি করা যেতে পারে? এটি এখন মানুষদের একমাত্র প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে এমন কমেন্ট কিন্তু আমাকে অনেকে করেছেন তাই আজকে আপনাদের জানাবো বিস্তারিত অর্থাৎ সম্ভাব্য কত ডলার কিংবা টাকা হতে পারে ১টি সাতোশি বিটিসিএস কয়েন?। ( Satoshi price usd )




Satoshi price usd | ১ সাতোশি কত টাকা?



সাতোশি বিটিসিএস কয়েন গুলো কি রিয়েল?


আসলে বর্তমান বাজারে যেহেতু দেখা যায় অনলাইনের ক্ষেত্রে বিশেষ করে বেশিরভাগ প্রজেক্ট গুলি কিন্তু ফেক হয়ে থাকে মানুষদেরকে দিয়ে কাজ করিয়ে নেয় কিন্তু কৌশল খাটিয়ে পরবর্তীতে তারা আর পেমেন্ট দেয় না এর সংখ্যা শতকরা হিসাব করলে কিন্তু 90 থেকে 95 পার্সেন্ট হয়ে থাকে তবে সব জায়গাতেই কিন্তু ভালো মন্দ থাকে এটা মানতে হবে হয়তোবা সংখ্যার দিক দিয়ে কম বেশি হয়ে থাকে। ( Online Help 360 )

তবে মনে রাখবেন যে প্রজেক্টগুলো অনলাইনে রিয়েল ভাবে এসে থাকে অর্থাৎ বড় বড় কোম্পানি যে প্রজেক্টগুলো রান করে থাকে সেই প্রজেক্ট গুলোতে কাজ করলে আল্লাহ দিলে জীবনে অনেক কিছু পাওয়া গিয়ে থাকে এবং নিজের ক্যারিয়ার ওখানে আল্লায় দিলে হয়ে থাকে তৈরি।

Satoshi কিংবা BTCs যে নামে আমরা ডাকি না কেন এই কোম্পানিটি রিয়েল কিনা সেটা নিয়ে আমি এর আগেও এখানে আর্টিকেল দিয়েছিলাম সেটি দেখার জন্য এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

১ সাতোশি বিটিসিএস কয়েন এর প্রাইস কত হতে পারে?


এ বিষয়ে অনেকের অনেক মতের অমিল রয়েছে কেউ বলতেছেন এটি যে হতো বিটকয়েনের নতুন প্রজেক্ট বিটকয়েনের সমান মূল্য হবে যেহেতু এটি বিটকয়েনের নতুন প্রজেক্ট আবার অনেকে বলছেন এটি‌ ইত্রিয়াম কয়েন এর মত প্রাইস হবে অবশ্য দুটি কথার যুক্তিগুলো একেবারে ফেলে দেওয়ার মতন না কারণ আমরা জানি 2041 সালে বিটকয়েন মাইনিং এর সমাপ্ত হবে হয়তোবা কম্পানি সে দিক দিয়ে বিবেচনা করে নতুন কয়েন টাকে মার্কেটে আনতে যাচ্ছে এরকমও তো হতে পারে। (Bitcoin launching date)

আবার এখন অনেকের মতে বিটকয়েনের পর এখন রাজ করতাছে ইথিরিয়াম নামের এই ডিজিটাল মুদ্রাটি বিটকয়েন হয়তোবা চাচ্ছে ইত্রিয়াম কে টেক্কা দিয়ে তারাই এই বাজারে রাজত্ব করুক এরকম মতের পক্ষে রয়েছেন অনেকে এবং আপনাদের এই নিয়ে কি ধরনের মত রয়েছে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিতে ভুলবেন না।


আপনাদের আরেকটি তথ্য জানিয়ে রাখি ক্রিপ্টোকারেন্সি গুলো কিন্তু চাইলেই একবার রান করার পরে নতুন করে আর নির্দিষ্ট পরিমাণের পর মাইনিং করতে পারে না যেমন একটি দেশের টাকার প্রয়োজন হলে নতুন করে সেই দেশের জাতীয় ব্যাংক টাকা উৎপাদন করতে পারে তবে ক্রিপ্টোকারেন্সির বেলায় এরকম হয় না কারণ এই ডিজিটাল মুদ্রা একটি নির্দিষ্ট পরিমাণে মার্কেটে আসে চাইলেও পরবর্তীতে আর উৎপাদন করা যায় না যেমনটা এই বিটকয়েনের বেলা কিংবা সাতোশি বিটিসিএস অ্যাপের বেলায় এমনটা হবে এই জন্যই কিন্তু এই মাইনিং কোম্পানী গুলো আগেই একটা নির্দিষ্ট পরিমাণে কয়েন মাইনিং করে নেয় বিভিন্ন মানুষদেরকে দিয়ে।

আপনারা হয়তোবা অনেকে জানেন বিষয়টা আবার অনেকে নাও জানতে পারেন সেটা হচ্ছে বিটকয়েন কিন্তু এখনো ফ্রিতে মাইনিং করা যায় তবে সেগুলো মাইনিং করতে বিটকয়েন মাইনিং মিসিং এর প্রয়োজন হয় কিংবা হাই কোয়ালিটির কম্পিউটার এর প্রয়োজন হয় কারণ বিটকয়েন মাইনিং করতে গেলে অনেক কারেন্ট খরচ হয় এবং অনেক টাকা দিয়ে মেশিনপত্র কিনে ব্যবহার করতে হয় তবে 2041 সালের পর ফ্রি বিটকয়েন মাইনিং সেটিও বন্ধ হয়ে যাবে।

এখন আপনারা সাতোশি বিটিসিএস কয়েন গুলো ফ্রিতে মোবাইল দিয়ে মাইনিং করতে পারতাছেণ তবে চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসের পরে সেটিও বন্ধ হয়ে যাবে এরপর কিন্তু বিটকয়েনের মতোই এই কয়েন গুলোকেও টাকা খরচ করে বিভিন্নভাবে মাইনিং করতে হবে কারণ কম্পানি 556 মিলিয়ন কয়েন ফ্রিতে মোবাইল দিয়ে কিংবা ল্যাপটপ কম্পিউটার দিয়ে মাইনি করতে দিবে আর Satoshi BTCs কোম্পানির টার্গেট হচ্ছে টু  বিলিয়ন দশমিক ওয়ান সর্বমোট কয়েন গুলো বাজারে আনবে বাকিগুলো তারা স্টকে রেখে দিবে যেগুলো পরবর্তীতে টাকা খরচ করে আস্তে আস্তে করে মানুষ মাইনিং করতে পারবে বিভিন্ন উপায়।




যখন বিটকয়েন বাজারে আসে 2009 সালের দিকে তখন একটি বিটকয়েন এর প্রাইস হয়েছিল একসেন্ট অর্থাৎ বাংলা টাকায় 80 পয়সার মতো তবে এখন তো বুঝতেই পারতেছেন 30 হাজার ডলারের উপরে বর্তমান বাজারে রয়েছে একটি বিটকয়েন এর প্রাইস যদিও এটি প্রাইস কতদিন আগে ৬০ হাজার ডলারের উপরে চলে গিয়েছিল।

আরেকটি বিষয় হচ্ছে একটি কয়েন এর মার্কেট ক্যাপ যত বেশি হবে ওই কয়েনের ভ্যালু তত বেশি বাড়বে উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে দেখবেন আপনারা লক্ষ্য করে যে মানুষের টাকা আছে সেই মানুষের দিকে মানুষ বেশি ঝুঁকে আর যার টাকা নেই তার দিকে মানুষ তেমন একটা ফিরেও তাকায় না বিটকয়েনের বর্তমান মার্কেট ক্যাপের স্ক্রিনশট নিচে দেওয়া হল দেখুন।


Bitcoin market cap



এখন কথা হচ্ছে বিটকয়েন যে কোম্পানি পরিচালনা করতাছেন সেই কোম্পানি কিন্তু এই Satoshi BTCs কয়েন গুলো কে পরিচালনা করেছেন সে দিক দিয়ে বিবেচনা করলে এই সাতোশি কোম্পানি কিন্তু অনেক দূর এগিয়ে রয়েছে কারণ এই কোম্পানি ভাল করেই এখন বুঝতে পেরেছে আল্লায় দিলে কিভাবে একটি কয়েন কে মার্কেটে সেরা হিসাবে উপস্থাপন করতে হয়।

আরো আপনারা জেনে খুশি হবেন বিটকয়েনে যারা ইনভেস্ট করেছিল সেই সকল ইনভেস্টর রাও কিন্তু এই Satoshi BTCs মাইনিং কোম্পানি তে তারা ইনভেস্ট করেছেন এদিক দিয়ে বিবেচনা করলেও কিন্তু বোঝা যাচ্ছে এই কয়েনটি ভবিষ্যত কতটা উজ্জ্বল সেটি বুঝার আপনাদের বিবেচনার উপরে ছেড়ে দিলাম।

বর্তমানে টেস্টণেট চলতাছে Satoshi BTCs মাইনিং কয়েন গুলোর সেখানে দেখা যাচ্ছে একটি সাতোশি কয়েনের প্রাইস উঠেছে $৩০০০ হাজার ডলারের উপরে যদিও এটি তেমন একটা প্রভাব ফেলবে না এই কয়েন এর মূল প্রাইজের ক্ষেত্রে তবে এখান থেকে অনেকটা ধারণা থেকেই কিন্তু এই কয়েন এর প্রাইস হয়ে থাকবে।


এই কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে একেকটি কয়েন এর প্রাইস তারা ইথিরিয়াম কয়েন গুলোর মতো তারা প্রাইস নির্ধারণ করবে এজন্য যত রকমের কাজ করতে হয় সবগুলো তারা করবে এমনটাই কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে সে দিক দিয়ে বিবেচনা করলে এই কয়েন এর ভবিষ্যৎ কিন্তু অনেক উজ্জ্বল তবে অনেকে বলছেন যেহেতু কয়েনগুলো নতুন এসেছে সেহেতু এখন অত বেশি প্রাইস হবে না হয়তো আস্তে আস্তে করে হবে প্রথম দিকে ১টি সাতোশি কয়েনের এর প্রাইজ হতে পারে $100 থেকে $500 ডলার পর্যন্ত যেটা বাংলা টাকায় 8000 থেকে 40000 টাকার উপরে চলে আসে।

এটা একটি প্রাথমিক ধারণা এটি ওই নির্ধারিত কোন মূল্য ণয় এর থেকেও বেশি হতে পারে আবার কম হতে পারে তবে এই মূল্যের থেকে বেশি হওয়ার সম্ভাবনা 90% এর উপরে রয়েছে।

মনে রাখবেন এই কয়েন গুলো যদি ঠিকঠাক মত কার্যকলাপ শুরু করতে পারে তাহলে আমরা যারা এখানে কাজ করতাছি আল্লাহপাকের দয়ায় ও রাসুলের উছিলায় সকলের মনের আশা এই কয়েন গুলো বিক্রি করে সেই টাকা দিয়ে পূরণ করা যাবে ইনশাআল্লাহ তবে অবশ্যই ভাল কাজগুলো।

আজকের আর্টিকেলের তথ্যগুলো নেওয়া হয়েছে ঊইকিপিডিয়া, ইউটিউব, গুগল থেকে রিচার্জ করে।



Post a Comment

0 Comments