Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Fiftzon থেকে প্রতিবারে ১২০০ টাকা করে ইনকাম | Fiftzon কি?

 মোবাইলে টাকা ইনকাম করার উপায়


একটু ভালো থাকতে একটু ভালো খেতে প্রতিটা মানুষই চায় একটু ভালো ভাবে জীবন যাপন করতে এটা মানুষের মৌলিক অধিকার এটা চাওয়া কোনো অন্যায় নেই কিন্তু কথা হচ্ছে সে ভালো থাকতে ও ভালো খেতে হলে অবশ্যই টাকার প্রয়োজন আছে সেই টাকা ইনকাম করার জন্য মানুষ প্রতিনিয়ত কতই না চেষ্টা করে যাচ্ছে।

আধুনিকতার পরিক্রমায় এখন দিন বদলে গিয়েছে এখন আধুনিকতার ছোঁয়ায় টাকা ইনকামের বিষয়টি এখন আধুনিক হয়ে গিয়েছে যে কেউ চাইলে এখন হাতের স্মার্টফোন কিংবা ল্যাপটপ দিয়ে করে নিচ্ছে প্রয়োজনমতো টাকা ইনকাম তবে সে ক্ষেত্রে অবশ্যই সঠিক গাইডলাইন ও রাস্তা জানতে হবে অন্যথায় টাকা ইনকাম কখনও হবেনা।

প্রতিদিন গুগলে সার্চ করলে কিংবা ইউটিউবে সার্চ করলে হাজারো লক্ষ অনলাইন ইনকাম রিলেটিভ ভিডিও নতুন নতুন পাওয়া যায় কিন্তু এদের ভিতর বেশিরভাগ সাইটগুলোই ফেক অর্থাৎ মানুষের সাথে প্রতারণা করে কাজ করিয়ে নেয় কিন্তু ঠিকমতো পেমেন্ট দেয় না রিয়েল অনলাইন ইনকাম সাইট পাওয়াটা এখন বেশ মুশকিল যদিও আমরা জানি ফেসবুক, গুগোল, অ্যামাজন, এ ধরনের রিয়েল কোম্পানিতে কাজ করা একটু কঠিন সবাই পারেও ণা এজন্যই কিন্তু সবাই অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারে না।

তবে কথায় বলে গোবরে নাকি অনেক সময় পদ্মফুল ফোঁটে ওরকমই কিছু সাইট চলে আসে অনলাইনে দুনিয়া নতুন নতুন সেই সাইট থেকে টাকা ইনকাম করা যায় হাতে থাকা বিভিন্ন ডিভাইস দিয়ে ইন্টারনেট কানেকশন ব্যাবহার করে এমনই একটি নতুন প্ল্যাটফর্ম চলে এসেছে অনলাইনের দুনিয়ায় এই কোম্পানিটি অনেক বড় একটি সুযোগ করে দিচ্ছে পৃথিবী জুড়ে বিভিন্ন মানুষদেরকে কিছুটা হলেও টাকা ইনকাম করার মাধ্যমে স্বস্তির নিঃশ্বাস যেন ফেলতে পারে সে দিক বিবেচনা করে।

এইতো কিছুদিন আগে ফেব্রুয়ারি 2022 সালে একটি নতুন ওয়েবসাইটের যাত্রা শুরু হল যার নাম হচ্ছে Fiftzon এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা যাবে 13 লেভেল কমিশন পাওয়ার সাথে এখানে আরো অনেক ধরনের অপরচুনিটি রয়েছে আসুন আমরা একে একে সব কিছু জানার চেষ্টা করি আর হ্যাঁ আরেকটা কথা এই নতুন ওয়েবসাইটটি থেকে প্রতিবারে বারোশো টাকা আর একটু কৌশল খাটিয়ে কাজ করতে পারলে প্রতিদিন 5 হাজার টাকা ইনকাম করা সম্ভব কিন্তু কি ভাবে জানতে হলে আর্টিকেলটির আগে বাড়ুন।



Fiftzon থেকে প্রতিবারে ১২০০ টাকা করে ইনকাম | Fiftzon কি?


Fiftzon কি?



এটি হচ্ছে একটি অনলাইন ইনকাম প্ল্যাটফর্ম অর্থাৎ মোবাইল কিংবা ল্যাপটপ দিয়ে ঘরে বসে যে কেউ যে কোন দেশ থেকে এই ওয়েবসাইটে ফ্রিতে অ্যাকাউন্ট খুলে বিভিন্ন কাজ করার মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে পারবে সেই টাকা গুলো আবার খুব সহজেই পেমেন্ট নিতে পারবে।

আরেকটু সহজ ভাষায় বলতে গেলে এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ছোট ছোট কাজ করে টাকা ইনকাম করা যায় তবে এখানে ফ্রি কাজ করার পাশাপাশি পেট ভাষণে কাজ করা যায় ফ্রী ভাষণে ইনকাম হবে একরকম আর আইডি একটিভ করে কাজ করলে ইনকাম টা একটু বাড়বে এটা হল পার্থক্য।

একটি মজার বিষয় আছে সেটি হলো এই ওয়েবসাইটে দেওয়া রয়েছে পার্টনার হিসাবে বড় বড় কোম্পানির ছবি অর্থাৎ এই ওয়েবসাইটটি বলতাছে অ্যামাজন, ওয়াল-মার্ট আলি এক্সপ্রেস এ ধরনের বড় বড় কোম্পানিগুলো তাদের সাথে পার্টনারশিপ হিসেবে রয়েছে সেই দৃশ্যের ছবি আপনারা এই ওয়েবসাইটটি ঘাটাঘাটি করলেই পেয়ে যাবেন।


Fiftzon কোন দেশের ওয়েবসাইট?



এই ওয়েবসাইটটি যখন অনলাইনে আসে অনেকের মুখ থেকে শুনেছি এটি নাকি লন্ডন থেকে পরিচালিত হয়ে আসছে তবে রিচার্জ করে দেখলাম এটি কয়েকটি দেশের নাগরিকগণ মিলে এই অনলাইন ইনকাম প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে তবে এটি রিচার্জ করতে গিয়ে দেখলাম এটি একটি বহুজাতিক কোম্পানি এখানে কয়েকটা দেশে এই ওয়েবসাইটটির অফিস রয়েছে যেমন এই কোম্পানির ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে ইউএসএ আমেরিকাতে তাদের অফিস রয়েছে সাথে ইউকে অর্থাৎ লন্ডনে রয়েছে তাদের অফিস এছাড়াও অস্ট্রেলিয়াতে রয়েছে সে দিক দিয়ে বলতে গেলে বোঝা যাচ্ছে এটি কয়েক দেশের নাগরিক মিলে হয়তোবা কোম্পানিটি তৈরি করেছে।

সন্দেহটা তো থাকাটাই স্বাভাবিক কারণ অনেক সময় দেখতে পাই বড় বড় দেশের নাম দিয়ে ছোট ছোট কিছু দেশগুলির নাগরিকরা কিছু ওয়েবসাইট বানিয়ে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়ে চলে যায় সে দিক দিয়ে বিবেচনা করলে এই ওয়েবসাইটটি নিয়ে রিসার্চ করে তারপরে কাজ করাটাই হবে উত্তম।


কি ধরনের কাজ করা যাবে?



এই কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে একজন গ্রাহক ফ্রিতে অ্যাকাউন্ট খুলে সে প্রতিদিন 40 টাকা অর্থাৎ প্রতি মাসে ১২০০ টাকা পর্যন্ত ভিডিও দেখে কিংবা সার্ভে করে বা অন্যান্য কাজ করে ইনকাম করতে পারবে আর যদি একজন গ্রাহক তার অ্যাকাউন্টি টাকার বিনিময়ে অ্যাক্টিভ করে কাজ করে তাহলে তার ইনকাম প্রতিদিন তিন ডাবল বেশি হবে অর্থাৎ 120 টাকা করে হবে এটা হল ফ্রি ভার্সন এবং পেট বাসন এর পার্থক্য।


তবে এটি বলে রাখা ভাল কোম্পানিটি যেহেতু অনলাইনে নতুন এসেছে বলা যেতে পারে নবজাতক শিশু সে দিক দিয়ে বিবেচনা করলে বুঝা যায় যে ভবিষ্যতে আরো অনেক কাজ আসতে পারে এখন পৃথিবী হচ্ছে ডিজিটাল কারেন্সির যোগ  হয়তো বা পরবর্তী সময়ে কোম্পানি ডিজিটাল কারেন্সি সহ বিভিন্ন আরো কাজ নিয়ে আসতে পারে।


এখানে কি ইনভেস্ট করে কাজ করলে ভালো হবে?


দেখুন এটা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার আপনি যদি ফ্রি ভাষণে কাজ করেন টাকা ইনকাম হয়তো একটু কম হবে তবে কোন রিক্স থাকবেনা আর যদি আপনি আইডি একটিভ করে কাজ করেন তাহলে কোম্পানি যদি কথার কথা চলে যায় তখন আপনার লস হবে সে দিক দিয়ে বিবেচনা করে আপনি চাইলে ইনভেস্ট করতে পারেন আবার না চাইলে ফ্রিতে কাজ করতে পারেন এটা আপনার বা আপনাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার।

আমার ব্যক্তিগত মতামত যদি আপনারা জানতে চান তাহলে অবশ্যই বলব ফ্রি তে একাউন্ট খুলে ফ্রিতে কাজ করে প্রথমে টাকা ইনকাম করুন যদি আপনার ইচ্ছে হয় আইডি একটিভ করবেন তাহলে ইনকাম করা টাকা দিয়ে পরবর্তী সময় আইডি একটিভ করে নিতে পারেন এরপরেও যদি আপনি চান যে না আমি টাকা ইনভেস্ট করব সেটা আপনারা নিজ দায়িত্বে করতে পারেন।

তবে একটি কৌশল অবলম্বন করে ইনকাম টা অনেকাংশে বাড়িয়ে নেওয়া সম্ভব প্রতিদিন কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত ইনকাম করার সুযোগ নেওয়া যেতে পারে যেমন এখানে 13 লেভেল পর্যন্ত রেফার কমিশন পাওয়া যাবে সে দিক দিয়ে যদি বেশি বেশি টিম বড় করা যায় তাহলে ইনকাম টা বাড়বে।


এখান থেকে পেমেন্ট নিব কিভাবে?



এইতো কিছুদিন আগের কথা আপনারা হয়তো বা ভুলে যাননি টিকটক কিন্তু এখন পৃথিবীর সর্বোচ্চ ডাউনলোডকৃত অ্যাপ্লিকেশন এটি কিন্তু এমনি এমনি হয়নি রেফার করার মাধ্যমে তারা এই অর্জন করেছে দেশ অনুযায়ী তারা লোকাল কারেন্সিতে পেমেন্ট দিয়েছে প্রতিটা রেফারে পনেরশো থেকে 3000 টাকা কিংবা তারও বেশি ইনকাম তারা দিয়েছে বাংলাদেশ থেকে বিকাশ ব্যাঙ্ক টেনেস্পার এর মাধ্যমে এবং অন্যান্য দেশে দেশের বিভিন্ন লোকাল কারেন্সির মাধ্যমে পেমেন্ট নেওয়া গেছে এজন্য টিকটক এতটা জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।



যাইহোক এই কোম্পানিটি ঠিক একই ফর্মুলা অবলম্বন করতে যাচ্ছে অর্থাৎ Fiftzon এই কোম্পানিটি দেশ অনুযায়ী লোকাল কারেন্সির মাধ্যমে পেমেন্ট দিতে যাচ্ছে অর্থাৎ আপনার দেশ যেই হোক না কেন ওই দেশের লোকাল কারেন্সি অনুযায়ী কিংবা ওই দেশের ব্যাংকের মাধ্যমে পেমেন্ট নেওয়ার সুবিধা দিচ্ছে এ কোম্পানিটি যেমন উদাহরণস্বরূপ বাংলাদেশে পেমেন্ট নেওয়া যাবে নগদে বিকাশে ও ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে ইন্ডিয়াতে পেটিএম কিংবা অন্যান্য মাধ্যমে।


Fiftzon এ কিভাবে একাউন্ট খুলবো?



এই ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট খোলা খুবই সহজ আপনার এনআইডি কার্ড অনুযায়ী ফুল নেম একটি ইউজারনেম ই-মেইল আইডি মোবাইল নাম্বার পাসওয়ার্ড দিয়ে এখানে একাউন্ট খোলা যাবে তবে এখানে অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে অবশ্যই একটি রেফারেল ইউজারনেম ব্যবহার করতে হবে আপনারা চাইলে আমার রেফার ইউজারনেম ব্যবহার করতে পারেন DigitalBangla360 এইভাবে করে লিখে দিতে পারেন এছাড়াও আপনাদের প্রয়োজনের কথা ভেবে ডিজিটাল বাংলা থ্রি সিক্সটি কোম্পানি আপনাদের জন্য একটি ভিডিওর ব্যবস্থা করেছে অর্থাৎ আপনারা Fiftzon এই ওয়েবসাইট এ একাউন্ট খোলার জন্য এখানে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখে অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে পারেন ও কোম্পানি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন এবং এই ভিডিওর ডিসক্রিপশন বক্স এ এই নতুন অনলাইন ইনকাম ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দেওয়া রয়েছে ওখানে ক্লিক করে একাউন্ট খুলতে হবে ভিডিও দেখে।


Post a Comment

0 Comments