Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Bkash থেকে Nagad সহ যে কোন মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা পাঠান নতুন নিয়মে-Binimoy একাউন্ট খোলার সঠিক নিয়ম

অবশেষে প্রতিকার প্রহর যেন শেষ হলো আজ থেকে চালু হলো বিকাশ থেকে নগদে কিংবা বিকাশ থেকে রকেটে বা বিকাশ থেকে উপায় অ্যাপে সহ যেকোনো মোবাইল ব্যাংকিং এ টাকা পাঠানোর নতুন নিয়ম যদিও অনেকটা সময় অতীতে চলে গিয়েছে এই সার্ভিসটি আনার জন্য অবশেষে আমরা পেলাম সে কাঙ্খিত সার্ভিসটি আজ থেকে আমরা উপভোগ করতে পারতাছি যে কোন মোবাইল ব্যাংকিং এ বিকাশ থেকে টাকা পাঠানোর সুবর্ণ সুযোগ।

তবে এখানে একটু ঝামেলাও রয়েছে এ কথাটি শুনে আবার অনেকের মুখের হাসিটা যেন বিলিন না হয়ে যায় কারণ আমরা জানি যে কোন জিনিসের ভালো দিক ও মন্দ দিক রয়েছে এইখানেও কিন্তু তার ব্যতিক্রম নয় অর্থাৎ এই সার্ভিসটি উপভোগ করতে গেলে আমাদেরকে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে যদি আপনারা সেগুলোকে সঠিকভাবে ফিলাপ করতে পারেন তাহলেই মিলবে এই সার্ভিসগুলো।

তবে এটা বলে রাখা ভালো এই সার্ভিসগুলো উপভোগ করার জন্য আপনাদের বা আমাদের কোন প্রকার টাকা পয়সা খরচ করতে হবে না সম্পূর্ণ ফ্রিতেই আমরা এই সার্ভিসগুলো উপভোগ করতে পারব লাইভ টাইম তাহলে এখন প্রশ্ন দাঁড়ায় সমস্যা কোথায়?

আর্টিকেলটি যদি মন দিয়ে পুরোটা পড়েন তাহলে অবশ্যই আপনারা এই বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ ধারণাটি পেয়ে যাবেন এবং আপনারা এই সার্ভিসটি উপভোগ করতে পারবেন কারণ এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আমি স্টেপ বাই স্টেপ আপনাদের দেখিয়ে দিব কিভাবে আপনারা এই সার্ভিস গুলো ব্যবহার করার জন্য একাউন্ট খুলবেন। তবে হ্যাঁ এই সংক্রান্ত আরেকটি আর্টিকেল আমি কয়েকদিন আগে দিয়েছিলাম যেটি বাংলাদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল সেই সংবাদ এর উপর ভিত্তি করে সেই আর্টিকেলটি এখানে ক্লিক করে পড়ে নিতে পারেন।



Bkash থেকে Nagad সহ যে কোন মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা পাঠান নতুন নিয়মে-Binimoy একাউন্ট খোলার সঠিক নিয়ম




এ সার্ভিসটি আপাতত শুধুমাত্র বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমেই পাওয়া যাচ্ছে তবে আস্তে আস্তে করে নগদসহ অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপ গুলোতেও পাওয়া যাবে বলে জানা গিয়েছে যাই হোক এখানে আপনাদের যে কাজগুলো করতে হবে প্রথমে আপনাদের বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন টিকে প্লে স্টোর থেকে বা অ্যাপ স্টোর থেকে আপডেট করে নিতে হবে নতুন ভাষণ এরপর অ্যাপটিতে আপনারা স্বাভাবিকভাবে পিন কোড ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে অর্থাৎ পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনারা লগইন করবেন।

বিকাশ অ্যাপটিতে লগইন করার পরে একটু নিচের দিকে নামলে আপনারা বিনিময় নামে একটা অপশন পাবেন ওখানে ক্লিক করতে হবে যেটা নিচে দেওয়া স্ক্রিনশটে দেখানো হয়েছে ঠিক ওখানে ক্লিক করুন।



ক্লিক করে দেওয়ার পরে এখানে বিনিময়ের সার্ভিসগুলো উপভোগ করার জন্য এখানে টার্মস এন্ড কন্ডিশনের একটা ফর্ম চলে আসবে ওখানে আপনারা আপনারা নিচে দেওয়া স্ক্রিনশট অপশনে দেখতে পারছেন


উপরের দিকে ছবিতে আপনারা দেখতে পারতাছেন যে দুটি আইকন রয়েছে এর ভিতর ডান দিকে তীর আইকন অপশনে ওখানে যখন ক্লিক করবেন এখানে একটু সমস্যা রয়েছে সেটা হচ্ছে আপনার বিকাশ অ্যাপটি অবশ্যই যেন লোকেশন চালু করা থাকে অর্থাৎ বিকাশ অ্যাপের ভিতরে যে লোকেশন অপশনটা রয়েছে ওখানে অবশ্যই আপনারা লোকেশন টা অ্যালাও দিয়ে দিবেন অন্যথায় নিচের ছবিতে দেখুন এরকম সমস্যা দেখাবে।

যাই হোক এরপর যখন আপনারা লোকেশন টা চালু করে দিবেন কিংবা যদি আপনার অ্যাপের লোকেশন চালু করা থাকে তাহলে নিচের ছবির মত এরকম ইন্টারফেস চলে আসবে লক্ষ করুন নিচের ছবিটি।

এরপর আপনারা উপরের ছবিতে দেখানো এরকম অপশন পেয়ে যাবেন অর্থাৎ রেজিস্টার অপশনে আপনাদেরকে ক্লিক করতে হবে এরপর যেটা আসবে সেটা জন্য আপনারা নিচে দেওয়া স্ক্রিনশট এর উপরে লক্ষ্য করুন।

যখনই আপনারা রেজিস্ট্রেশন অপশনে ক্লিক করবেন এরপরে আপনাদের সামনে উপরে দেখানো স্ক্রিনশট এর মত এরকম একটা ফর্ম চলে আসবে এখানে আপনাদেরকে বলবে এই ফর্মটা পূরণ করার জন্য উপরে একটা ইমেইল দিবেন যেই মেইলটা আপনার কাছে সবসময় থাকবে এরপরে আপনার আইডি কার্ডের পিছনে যে পোস্টাল কোড রয়েছে সেটা দিবেন অবশ্যই ওই আইডি কার্ডের পোস্টাল কোড ব্যবহার করবেন যেই আইডি কার্ড দিয়ে আপনার এই অ্যাপ্লিকেশন অর্থাৎ বিকাশ একাউন্ট খোলা হয়েছিল। এরপর এখানে অবশ্যই টিন সার্টিফিকেট নাম্বার আপনাদের দিতে হবে অর্থাৎ এখানে অবশ্যই বাধ্যতামূলকভাবে ইটিণ নাম্বার আপনাদের ব্যবহার করতে হবে অর্থাৎ যেটাকে আমরা ট্যাক্স নাম্বার হিসেবে চিনে থাকি এই তিনটা অপশন ফিলাপ করার পরে আপনাদের সামনে আরো একটা অপশন থাকবে সেটা হচ্ছে তোমার ইউজার আইডি এখনকার বিষয়টা আপনাদের বলে রাখি এখানে যেই ইউজারনেম ব্যবহার করবেন এটা আপাতত আর পরিবর্তন করতে পারবেন না তাই নাম ব্যবহার করার সময় অবশ্যই দেখে বুঝে ভেবে তারপর ব্যবহার করবেন আর এই ইউজার নামের মাধ্যমে কিন্তু আপনাদের টাকা লেনদেন হবে। এই চারটা স্টেপ যখন আপনারা ফিলাপ করে ফেলবেন তখনই আপনারা কনফার্ম অপশনটার উপরে আলতো করে চাপ দিবেন এরপরের স্টাটা দেখার জন্য নিচে দেওয়া স্ক্রিনশটের উপরে লক্ষ্য করুন।

এরপর উপরের দিকে যে স্ক্রিনশটটা দেখতে পারতেছেন এরকম ইন্টারফেস চলে আসবে এখানে আপনাদেরকে কমপক্ষে ছয় সংখ্যার একটি পাসওয়ার্ড বা পিন কোড ব্যবহার করতে হবে অবশ্যই ইংলিশে কমপক্ষে ছয় সংখ্যার ইংলিশে পিন কোড দেওয়ার পর আপনাদেরকে অবশ্যই সাবমিট অপশনে ক্লিক করতে হবে আর হ্যাঁ অবশ্যই পিনকোড ভালো জায়গায় লিখে রাখবেন যাতে হারিয়ে না যায় অথবা মনে রাখবেন এরপর নিচে দেওয়া স্ক্রিনশটের উপরে লক্ষ্য করুন।

এরপর আপনারা উপরের দেওয়া স্ক্রিনশটটি লক্ষ্য করুন এরকম একটা ইন্টারফেস চলে আসবে এখানে লেখা থাকবে কংগ্রাচুলেশন অর্থাৎ আপনাদের একাউন্টটি হয়ে যাবে যদি সঠিকভাবে ইনফরমেশন দিতে পারেন এরপরে নিচের দিকে লেখা রয়েছে ব্যাক টু বিকাশ হোম এখানে ক্লিক করলেই হোম অপশনে নিয়ে যাবে। এরপরের স্টেপ গুলো পাওয়ার জন্য আপনাদেরকে আবার বিনিময় অপশনে ক্লিক করতে হবে এরপর আপনারা নিচে দেওয়া স্ক্রিনশট লক্ষ্য করুন এ রকম ইন্টারভিউ চলে আসবে

এরপর আপনারা উপরের দিকে ছবিটি লক্ষ্য করুন এরকম ইন্টারফেস দেখতে পাবেন এখানে লেখা থাকবে বিনিময় অ্যাকাউন্ট নিউ রেডি টু ইউজ অর্থাৎ একাউন্টটি হয়ে গেছে এ বিষয়টি এখানে আপনাদেরকে জানিয়ে দিবে অর্থাৎ এখন আপনারা একাউন্টটি ব্যবহার করতে পারবেন এরকম একটা পপ আপ চলে আসবে।

আরেকটা কথা বলে রাখা ভালো এই ইন্টারফেসে আপনারা প্রোফাইল নামে একটা অপশন দেখতে পাবেন ওখানে আপনাদের যাবিতীয় ইনফরমেশন পাবেন যেমন ইমেল এড্রেস ই টিণ নাম্বার এবং এই অপশন থেকে আপনারা পরবর্তী সময় পিন চেঞ্জ করতে পারবেন।

এরপর আপনারা যখন কাউকে টাকা পাঠাতে যাবেন যখনই আপনারা বিনিময় অপশনে ক্লিক করে চলে আসবেন তখন ওখানে দেখতে পাবেন একটা অপশন রয়েছে ডিরেক্ট পে ওখানে যখন ক্লিক করবেন এরপর আপনাদের সামনে নতুন একটা প্রেস ওপেন হবে এখানে আপনাদের তিনটা অপশন পূরণ করতে হবে অর্থাৎ আপনারা কত টাকা পাঠাতে চান সেই অ্যামাউন্টটা বসাতে হবে এরপর কার কাছে টাকা পাঠাতে চান সেই ইউজার নেম লিখতে হবে এরপরের স্টেপে আপনাদের লিখতে হবে কেন টাকা পাঠাতে চান সে বিষয়টা সংক্ষিপ্ত আকারে বিষয়টা ইংলিশে বা বাংলাতে সংক্ষিপ্ত আকারে লিখে দিবেন এরপর প্রসেসিং অপশনে ক্লিক করবেন এরপর বিকাশ অ্যাপের যে পিন নাম্বার রয়েছে সেটা দিতে বলবে ওটা দিয়ে কনফার্ম করবেন এরপরে বিনিময় একাউন্ট খোলার সময় যে পাসওয়ার্ডটা দিয়েছিলেন সেটা দিয়ে যখন আপনারা ওকে করবেন অথবা কনফার্ম অপশনে ক্লিক করবেন তখনই কাঙ্খিত গ্রাহকের কাছে আপনার পাঠানো টাকা পৌঁছে যাবে। আরো সহজে বুঝার জন্য নিচে দেওয়া স্ক্রিনশট টি লক্ষ্য করুন

তবে মনে রাখবেন টাকা পাঠানোর জন্য বিকাশ এপ্লিকেশন কোন চার্জ করে না তবে এটা যেহেতু বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব একটি সার্ভিস বিনিময় সেহেতু এ কারণে ওটার একটা সার্ভিস চার্জ রয়েছে অর্থাৎ আপনার টাকার এমাউন্টের হিসাবে অনুযায়ী পরিমাণ মোতাবেক সার্ভিস চার্জ কাটবে আশা করি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন।

তবে মনে রাখবেন এই সার্ভিসগুলো আস্তে আস্তে করে প্রতিটা মোবাইল ব্যাংকিং কোম্পানির অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে চালু করা হবে এই সার্ভিসগুলো পাওয়াতে আপনারা কতটুকু উপকৃত হয়েছেন সেটা জানিয়ে আমাদেরকে কমেন্ট করতে ভুলবেন না আর হ্যাঁ পরবর্তী আর্টিকেল এ বিষয় নিয়ে কোন কোম্পানির সম্পর্কে জানতে চান সেটা জানিও কমেন্ট করতে পারেন। ধৈর্য সহকারে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য সকলকে ধন্যবাদ।

আরো আপডেট পাওয়ার জন্য এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম কমিউনিটিতে যোগ দিন।


তবে হ্যাঁ মনে রাখবেন এই সার্ভিসটি শুধু তার সাথেই আপনি শেয়ার বা উপভোগ করতে পারবেন যার এই বিনিময় একাউন্ট খোলা রয়েছে।





Post a Comment

0 Comments