Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Empowr beta launch 2022 | Empowr থেকে ঘন্টায় ৭০০০ টাকা ইনকাম

 How to empowr marketplace



অনলাইন থেকে যারা টাকা ইনকাম করতে চান তারা ভালো একটি রিয়েল ওয়েবসাইট কিনবা অ্যাপ্লিকেশন খুঁজে থাকেন এটি হলো একটি স্বাভাবিক বিষয় এবং অনলাইন ইনকাম রিলেটিভ রিয়েল সাইট বলতে আমরা গুগল-ফেসবুকে বিশেষ করে চিনে থাকি এখন এই গুগল কিংবা ফেসবুকের মতোই নতুন একটি কোম্পানি চলে এসেছে নতুন বললে ভুল হবে এই কোম্পানিটি 2007 সাল থেকে মার্কেটে রয়েছে এখন 2022 সাল তো বুঝতেই পারতেছেন কোম্পানিটি কতটা স্বচ্ছতার সাথে তার গ্রাহকদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে ।

এই কোম্পানিটি এমন একটি কোম্পানি যেখান থেকে টাকা ইনকাম করার কোন লিমিট নেই অর্থাৎ বলা যেতে পারে মোটামুটি আনলিমিটেড টাকা উপার্জন করার সুযোগ রয়েছে এই ওয়েবসাইটটি থেকে তো বুঝতেই পারতেছেন এখান থেকে আসলে টাকা ইনকাম করার সুযোগ টি কতটা রয়েছে তবে সেটিকে যথাযথভাবে প্রয়োগ না করতে পারলে এক টাকাও ইনকাম করা যাবে না ।


আপনাদের হয়তবা অনেকের মনে থাকতে পারে 2019 সালের দিকে অনেকেই এই ওয়েবসাইটটি থেকে টাকা উপার্জন করেছেন হিউজ পরিমান কেউ কেউ তো প্রতি মাসে 1 থেকে 2 লক্ষ টাকা উপার্জন করেছেন তাও আবার সম্পূর্ণ ফ্রিতে এখানে কোন ইনভেস্ট করতে হয় না সম্পূর্ণ ফ্রি তে একাউন্ট খুলে সম্পূর্ণ ফ্রি তে কাজ করে টাকা উপার্জন করা যায় ।

অনেকে হয়তো বা মনে মনে আল্লায় দিলে অনুমান করতে পেরেছেন আর কোন ওয়েবসাইটের কথা নয় এটি হচ্ছে এম্পিয়ার যে বন্ধুরা আপনারা যারা বুঝতে পেরেছেন তারা ঠিকই ধরতে পেরেছেন এম্পিয়ার ওয়েবসাইটটিতে কিন্তু হিউজ পরিমান অর্থ উপার্জন করা সম্ভব পূর্বে 2007 সাল থেকে 2019 সাল পর্যন্ত অনেকেই হিউজ পরিমান অর্থ উপার্জন করেছেন বিভিন্ন দেশ থেকে ।

আজকে আপনাদের মাঝে শেয়ার করব এম্পিয়ার ওয়েবসাইট কি? এম্পাওয়ার ওয়েবসাইটে কিভাবে কাজ করতে হয়? এম্পিয়ার ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে ইনকাম হয়? কিংবা কিভাবে পেমেন্ট নেওয়া যায়? অর্থাৎ এম্পিয়ার সম্পর্কে এ টু জেড আজকের আর্টিকেল এ আপনাদের মাঝে তুলে ধরব যাতে করে আপনারা অনলাইন থেকে টাকা উপার্জন করতে পারেন হাতের স্মার্টফোন কিংবা ল্যাপটপ দিয়ে ।



Empowr beta launch 2022 | Empowr থেকে মাসে 40 হাজার টাকা ইনকাম



Empowr কি?



এম্পিয়ার মূলত পরিচালিত হয়ে আসছে ইউএস থেকে অর্থাৎ আমেরিকা নামে আমরা বাংলাতে যেটা বুঝে থাকি সেই দেশ থেকেই এম্পাওয়ার কোম্পানিটি পরিচালিত হয়ে আসছে সেই 2007 সাল থেকে ।

এম্পিয়ার মূলত একটি মার্কেটপ্লেস যে মার্কেটপ্লেসে বিভিন্ন কাজ করার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন হয়ে থাকে উদাহরণস্বরূপ আমরা বলতে পারি ফেসবুকের কথা ফেসবুকে যে রকম বিভিন্নভাবে টাকা উপার্জন করা যায় এটা আমরা এখন মোটামুটি সবাই জানি তবে ফেসবুক থেকে শুধুমাত্র যারা মিডিয়াম লোকজন রয়েছেন কিংবা এডভান্স লেভেলে রয়েছে তারাই শুধু অর্থ উপার্জন করতে পারে তবে এম্পিয়ার থেকে একজন বিগিনার অর্থাৎ একজন নতুন মানুষ এখান থেকে উপার্জন করতে পারে এটা হল এম্পিয়ার একটি আলাদা টাকা ইনকাম করার সুযোগ ।

তবে অনেকেই এম্পিয়ার কে আবার ছোট কম্পানী ভেবে যেতে পারেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি এম্পিয়ার কোনো ছোটখাটো কোম্পানি নয় ফেসবুক গুগল যেমন বড় কোম্পানি বিশ্বের 10 টি কোম্পানির মধ্যে তাদের নাম প্রথম দিকে চলে আসে ঠিক ওরকমই এম্পিয়ার একটি বড় কোম্পানি তো বুঝতেই পারতাছেণ ছোট করে দেখার কোন সুযোগ নেই এম্পিয়ার কে ।

অ্যাম্পেয়ার ওয়েবসাইটে আপনি ফেসবুকের মত ব্যবহার করতে পারবেন ফেসবুকের মত পেজ কিংবা গ্রুপ খুলে সেগুলো থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন তবে ফেসবুকে যেমন পোস্ট করলে সাধারণভাবে কোন টাকা উপার্জন হয় না তবে এম্পিয়ার থেকে পোস্ট করার মাধ্যমে হিউজ পরিমান টাকা উপার্জন হয়ে থাকে তো বুঝতেই পারতেছেন এম্পাওয়ার কিন্তু এদিক দিয়ে ফেসবুক থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে ।

আরো সহজ ভাষায় বলতে গেলে এম্পিয়ার হচ্ছে একটি সোশ্যাল মিডিয়া যেমন আট-দশটা সোশ্যাল মিডিয়া আমরা চীনে থাকি ফেসবুক, টুইটার, লিঙ্কডইন ইত্যাদি এই ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া গুলোর মতই এম্পিয়ার কাজ করে থাকে তবে Empowr থেকে আলাদাভাবে কিছু ইনকাম করা যায় বিশেষ করে নতুনদের জন্য রয়েছে বিশেষ ইনকাম করার ব্যবস্থা এজন্য খুব কম সময়ের ভিতর কিন্তু রাতারাতি বড় হয়ে উঠেছে এম্পিয়ার কোম্পানিটি ।

প্রবাসীদের পেমেন্ট গেটওয় 


2004 সালের দিকে ফেসবুক প্রথম যাত্রা শুরু করে অনলাইন জগতে ছোট্ট পরী সেবার মাধ্যমে 2007 সালে লঞ্চ করা হয় এম্পাওয়ার কোম্পানিটিকে তো বুঝতেই পারতেছেন ফেসবুক এবং এম্পিয়ার খুব একটা ডিফারেন্ট সময় কিন্তু অনলাইনে আসিনি প্রায় অনেকটা কাছাকাছি সময়ে কিন্তু অনলাইনে চলে এসেছে এ দুটি কোম্পানি তবে ফেসবুকে সবাই চিনলেও বেশিরভাগ মানুষই চিনেন না এম্পিয়ার কে কারণ ফেসবুকে মানুষ যায় শুধু ফ্রেন্ডের সাথে মনের কথা বার্তা আদান প্রদানের জন্য আর এমপিয়ারে যারা আসেন তারা আসেন অর্থ উপার্জন করার জন্য আশা করি বিষয়টি আপনারা বুঝতে পেরেছেন ।


Empowr এ কিভাবে কাজ করতে হয়?


এম্পিয়ার ওয়েবসাইটে কিংবা অ্যাপ্লিকেশন এ কাজ করতে গেলে আমরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে ঘরে বসেই কাজগুলো করতে পারব যে কোন স্মার্টফোন কিংবা ল্যাপটপের ধারা আমরা কাজগুলো সম্পন্ন করতে পারব তবে এম্পাওয়ার গাইডলাইন এক্ষেত্রে অবশ্যই এগুলো ফলো করতে হবে অন্যথায় আমাদের একাউন্টটি যেকোনো সময় সাসপেন্ড হয়ে যেতে ।

এম্পিয়ার ওয়েবসাইটে মোট কয়েক রকম ভাবে কাজ করে অর্থ উপার্জন করা যায় এর মধ্যে সবচাইতে জনপ্রিয় যে মাধ্যমটি রয়েছে সেটি হল পোস্টিং অর্থাৎ এমপিয়ারে ফেসবুকের মত পোস্ট করে অর্থ উপার্জন করার সুযোগ রয়েছে এই সুযোগটি কাজে লাগিয়েই যে কেউ চাইলে অর্থ উপার্জন করে নিতে পারবে ।

তবে মনে রাখা প্রয়োজন যে সেই পোস্ট করলেই হবে না অবশ্যই মানসম্পন্ন পোস্ট করতে হবে তাহলেই কেবল এম্পায়ার থেকে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব হবে অন্যথায় আপনার প্রোফাইলটি ডাউন হয়ে যাবে ।

অ্যাম্পিয়ারের মূলত প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করা হয়ে থাকে এটি হলো এম্পিয়ার মার্কেটপ্লেসে সবচাইতে বেশি জনপ্রিয় ইনকাম করার সবচেয়ে বড় মাধ্যম ধরেন আপনি অ্যামাজনে গেলেন অ্যামাজন থেকে যে কোন প্রোডাক্ট যদিও আপনি চাইলে লিস্ট করে বা পোস্ট করে নিয়ম মেনে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন তো আপনাদের আমি উদাহরণস্বরূপ বলছি ধরেন আপনি অ্যামাজন থেকে একটি স্মার্টফোন পছন্দ করলেন সেটিকে আপনি এম্পিয়ার মার্কেটপ্লেসে এনে সেই স্মার্টফোনটি ছবিটি আপলোড করলেন টাইটেল দিলেন দেস্ক্রিপশন দিলেন এর সাথে চাইলে আপনার যদি অ্যাফিলিয়েট লিংক থাকে সেটিও দিতে পারেন তবে এফিলিয়েট লিংক না থাকলে কোন সমস্যা নেই শুধুমাত্র অ্যামাজন থেকে যে পন্যটি আপনি লিস্টিং করতে চাচ্ছেন বা পোস্ট করতে চাচ্ছেন সেই পণ্যটি ছবি নিয়ে আসতে হবে অবশ্যই এই ক্ষেত্রে এডিট করে দিলে ভালো হয় তারপরে ওই স্মার্টফোনটির অথবা অন্য পণ্যটির যে টাইটেল দেওয়া রয়েছে সেটিকে কপি করে এনে এমপিয়ারে টাইটেল অপশনে দিয়ে দিতে হবে এরপর ওই পণ্যটির দেস্ক্রিপশন বক্সে যে লেখা রয়েছে সেগুলো কে হুবহু কপি করে এনেও এম্পাওয়ার স্ক্রিপশন বক্সে দিয়ে দিতে হবে তবে সবচাইতে ভালো হয় যদি আপনি অ্যামাজনের পণ্যের ডেস্ক্রিপশন বক্স থেকে ডেসক্রিপশন ধারণা নিয়ে নিজে লিখে দিতে পারেন ।

এরপর সবগুলো কাজ সম্পন্ন হয়ে যাওয়ার পরে আপনি যখন পোস্টটি পাবলিক করে দিবেন এই পোস্টটি যখন বিভিন্ন দেশ থেকে মানুষজন দেখবে ক্লিক করবে আর যদি সেই পণ্যটি অর্ডার করে এমাজন থেকে কিনে তাহলে ইনকাম টা এম্পাওয়ার মার্কেটপ্লেস থেকে আপনাকে বেশি দিয়ে থাকবে আর যদি পণ্যটি না কিনে শুধুমাত্র দেখে কিংবা কিলিক করে এই জন্য কিন্তু কিছু পরিমাণ এম্পিয়ার কর্তৃপক্ষ ইনকাম দিয়ে থাকে আশা করি বিষয়টা বুঝতে পারছেন ।

এম্পিয়ার থেকে আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে কোচিং করে ইনকাম অর্থাৎ গাইডলাইন সবার মাঝে প্রদান করার মাধ্যমে ইনকাম করা হয়ে থাকে এই ইনকাম টি কিন্তু হিউজ পরিমান হয়ে থাকে এ ছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি ভাবে এম্পাওয়ার থেকে ইনকাম করা যায় আরেকটি অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে স্পিন করে টাকা ইনকাম করা অর্থাৎ রয়েছে চাকা ঘুরিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায় চাকা ঘুরে ঘুরে যে সংখ্যার উপরে থামবে ওই অনুযায়ী আপনি অ্যামাউন্ট পেয়ে থাকবেন সেটা হতে পারে 100 ডলার কিংবা 1000 ডলার অথবা বিভিন্ন সংখ্যাতে ।


Empowr কোচ কি?


একটি জিনিস লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন আপনি অনলাইনে কাজ করেন কিংবা অফলাইনে সব জায়গাতেই কিন্তু একটি গাইডলাইন রয়েছে অর্থাৎ যে প্রতিষ্ঠানে আপনি কাজ করবেন ওই প্রতিষ্ঠানের একটি নিয়মাবলী রয়েছে যে নিয়মাবলী বাইরে কাজ করলেই কিন্তু ঘটে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি হয় অনেক সময় কিন্তু ওই ওয়েবসাইট থেকে কিংবা ওই প্রতিষ্ঠানের থেকে সাসপেন্ড করা হয়ে থাকে তো বুঝতেই পারতেছেন গাইডলাইন মানাটা কতটা প্রয়োজন ।

ফেসবুক কিংবা ইউটিউব যেকোনো অনলাইনে ইনকাম ওয়েবসাইট কিংবা অ্যাপ্লিকেশন হোক না কেন সেখানে দেখতে পাবেন তাদের নিজস্ব কিছু গাইড লাইন দেওয়া থাকে বিভিন্ন সময় আবার বিভিন্ন তারা আপডেট নিয়ে আসে সেটা আবার তারা বিভিন্ন সময় মানুষের সামনে উপস্থাপন করে তাদের সেই গানগুলো সেগুলো মেনে যারা কাজ করে তারা কিন্তু আল্লায় দিলে এগিয়ে যেতে পারে আর যারা তাদের গাইড লাইন ব্রেক করে তারা কিন্তু বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন এদের ভিতর আবার বেশির ভাগ ব্যর্থতার রাস্তাতেই চলে যান ।

আমরা ক্রিকেট খেলা কিংবা ফুটবল খেলা অনেকেই ভালোবাসি এখন কথা হচ্ছে এই কিরিকেট কিন্তু একটি মাত্র কোচে শিখাতে পারে না আর যে দেশের খেলোয়াড়দের জন্য একটিমাত্র অলরাউন্ডার কোচ থাকে সেই খেলোয়াড়রা কিন্তু বেশি দূর এগোতে পারেনা লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন কারণ একটি মানুষ 5 দিকে এক্সপার্ট হয় না এটাই হলো বড় কারন ।

এখন লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন অনেক দেশেই ক্রিকেটার যারা রয়েছেন তাদের জন্য আলাদা আলাদা কোচ নিয়োগ দিয়ে থাকেন অর্থাৎ বোলিং কোচ আলাদা ফিলিংস কোচ আলাদা ব্যাটিং কোচ আলাদা আশা করি বিষয়টা আপনারা বুঝতে পারছেন এবং এই কোচগুলো এই প্রশিক্ষণ দেওয়ার কারণেই কিন্তু একটা মোটা অঙ্কের বেতন পেয়ে থাকেন প্রতিমাসে সেই বেতনটি কিন্তু বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ড থেকে দেওয়া হয়ে থাকে ।

এখন কথা হচ্ছে যদি অন্যান্য অনলাইন ইনকাম ওয়েবসাইট কিংবা অ্যাপ্লিকেশন এর মত যদি গাইড লাইন গুলো সাজিয়ে রাখা হয় ট্রাম এন্ড কন্ডিশন পেজ এর ভিতরে তাহলে অনেক মানুষই সেটি বুঝতে পারে না কিংবা নিত্য নতুন নতুন কি কি আপডেট এসেছে সেগুলোর বিষয়ে অবগত হতে পারে না এটা হল একটি বড় সমস্যা মনে করতে পারেন অনেকে ।

এই জন্য এ ধরনের নিয়ম চালু করেছে এম্পিয়ার কর্তৃপক্ষ এই নিয়মটি চালু করেছে অর্থাৎ তারা ফুটবল ক্রিকেটের মত এম্পাওয়ার কোম্পানির ওয়েবসাইটে কিংবা অ্যাপ্লিকেশনে রয়েছে নিজস্ব কোচিং এর ব্যবস্থা এখানেও কোচ থাকে যে কোচের আন্ডারে যারা কাজ করেন তারা সেই কোচ থেকে বিভিন্ন সহযোগিতা পেয়ে থাকেন যেহেতু বিভিন্ন স্টুডেন্টদেরকে বিভিন্ন সময় সহযোগিতা করে থাকেন কোচরা সেজন্য এম্পিয়ার কোম্পানি কোচদের কে মাসিক একটি স্যালারি প্রদান করে থাকে আশা করি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন ।

তবে এখানে কিছু বাধ্যবাধকতার বিষয় রয়েছে এখন অনেকেই চাইবেন আবার কোচ হতে স্টুডেন্ট থেকে কারণ যেহেতু কোচ হতে পারলে অর্থ উপার্জন বেশি করা যায় । তবে কোচ হতে গেলে কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন রয়েছে অনেক কিছু জানার প্রয়োজন রয়েছে ইংলিশে মোটামুটি মানে দক্ষতা অর্জন করার প্রয়োজন রয়েছে এছাড়াও আরো অনেক যোগ্যতা থাকতে হবে তাহলেই কেবল কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করা যাবে যদি এম্পিয়ার অ্যাপ্রুভ করে তাহলেই কেবল কোচের তালিকায় চলে আসা যাবে ।

এখন আবার অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন কোচ হলে মাসিক কত টাকা সেলারি তারা দিয়ে থাকতে পারে বা দিয়ে থাকে এর সঠিক উত্তর হচ্ছে কোচেরও রয়েছে নানা রকমের ক্যাটাগরি অর্থাৎ লেভেল অনুযায়ী কোচদের বেতন হয়ে থাকে যদি আপনি বিগেনার কোচ হয়ে থাকেন তাহলে হয়তোবা 15 থেকে 20 হাজার টাকা মাসিক সেলারি পাবেন আর যদি আপনি মেদিয়াম মানের অর্থাৎ যদি কিছুদিন বয়স আপনার কোচ থাকাকালীন সময় হয় তাহলে 30 থেকে 40 হাজার আর যদি আরেকটু কোচ অবস্থায় থাকাকালীন সময়ে থাকতে পারেন তাহলে 50 হাজার টাকা থেকে এক লক্ষ টাকা কিংবা তারও বেশি ইনকাম করা সম্ভব ।


আপনারা জেনে খুশি হবেন আল্লায় দিলে আমি নিজেও কিন্তু এম্পাওয়ার একজন প্রফেশনাল মানের কোচ আমি নিজেও কিন্তু অনেক স্টুডেন্টদের কে গাইড দিয়েছি বা আগামীতে দিবো আল্লায় দিলে ইনশাআল্লাহ আপনারা চাইলে আমার কোচের অধীনে কিন্তু আপনারা কাজ চালিয়ে যেতে পারেন । আপনি যদি আমার অধীনে স্টুডেন্ট হতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করে ফেসবুক পেজে জয়েন হতে পারেন ।


Empowr থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা সম্ভব?


এই প্রশ্নের উত্তরটা দেওয়ার ক্ষেত্রে বরাবরের মতই আমার কাছে একটু আনইজি লাগে কারণ কি জানেন? এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর দেওয়াটা আসলে কারো পক্ষে সম্ভব নয়, এই কথাটা শুনে হয়তোবা অনেক অবাক হয়েছেন এটা আবার ভাই একি বলল তাহলে নিচের দিকে দেখুন প্রশ্নের উত্তরটি পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ ।

আমাকে যদি আপনারা বলেন যে ভাই আপনাকে একটি গাছের বীজ দিব নাকি কিছু ফল দিবো আমি কিন্তু আপনাদের কাছে বলব আমাকে গাছের বীজ দিন অর্থাৎ গাছের যে দানা টি রয়েছে সেটি দিন কারণ কি জানেন? আপনি যদি আমাকে ফল দেন ওটাকে আমি এখন খেলে শেষ হয়ে যাবে কিন্তু আপনি যদি আমাকে গাছের বীজ দেন ওটা যদি আমি মাটিতে রোপন করি আর সেটিকে যদি আমি আস্তে আস্তে করে পরিচর্চা করি পানি দেই প্রতিদিন ডালপালা ঠিক মত গর্জে উঠার জন্য পরিচর্যা করি তাহলে একটা সময় এই একটি বীজ থেকে যে গাছটি হলো সেটি আমাকে সারা জীবন আল্লায় দিলে ফল দেবে আমি এই জন্যই কেবল গাছের বীজ ণিব আশা করি প্রশ্নের উত্তরটা পেয়েছেন ।

অর্থাৎ আমি বুঝাতে চেয়েছি আপনি একটি গাছকে যতটা পরিচর্যা করবেন ওই গাছটি আল্লায় দিলে তত ভালোভাবে বেড়ে উঠবে ওরকম ভাবেই গাছটি তত বেশি শক্তিশালী ভাবে বেড়ে উঠবে ততো বেশি ফল দেবে আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন? এখন আপনার Empowr প্রোফাইলটিকে যতটা আপনি পরিচর্যা করতে পারবেন আপনি ঠিক ততটাই ওখান থেকে মুনাফা অর্জন করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ ।



তবে কিছু ধারনা দাওয়া যেতে পারে যেহেতু Empowr এ অনেক রকমের কাজ রয়েছে এর ভিতরে একটি হল চাকা ঘুরিয়ে ইনকাম অর্থাৎ স্পিন করলে যে কোন পরিমাণ এর সংখ্যা পাওয়া যেতে পারে এদিক দিয়ে বিবেচনা করলে ও অ্যামাজনের যে প্রোডাক্টগুলো আপনারা বা আমরা লিস্ট করবো বা পোস্ট করব সেগুলো যখন বিক্রি হবে প্রতি মিনিটে মিনিটে বা প্রতি ঘন্টায় হয়তোবা এগুলো অনেক বেশি বিক্রি হতে পারে সেই হিসাবে বলা যেতে পারে প্রতি ঘন্টায় 7 হাজার কিংবা তারও বেশি ইনকাম হওয়ার অপরচুনিটি রয়েছে । তবে ক্ষেত্রবিশেষে এর বেশি কম হতে পারে ।


Empowr থেকে কি রেফার করে ইনকাম করা যায়?


আমরা দেখছি ইউটিউব কিংবা ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করা গেলেও এই সোশ্যাল মিডিয়া গুলো থেকে রেফার করে কোন প্রকারের টাকা উপার্জন করা যায় না কারণ এই ওয়েবসাইটগুলো রেফার ছাড়া ও কিন্তু ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে পৃথিবীজুড়ে ইতিপূর্বে এটি হয়তো আমরা অনেকেই জানি ।

আপনারা জেনে খুশি হবেন এম্পিয়ার থেকে রেফার করে হিউজ পরিমাণে টাকা উপার্জন করার সুযোগ রয়েছে অর্থাৎ এখানে প্রতিটি রেফারের জন্য 20 ডলার পর্যন্ত তারা রেফার কমিশন দিয়ে থাকে যদিও এখানে কিছু শর্তসাপেক্ষের ব্যাপার রয়েছে ।



Empowr থেকে কিভাবে পেমেন্ট নিব?



পূর্বে empowr থেকে পেমেন্ট নেওয়ার কিছু মাধ্যম ছিল যখন এম্পিয়ার প্রথম মার্কেটে আসে তখন শুনেছি অনেকে পেপালের মাধ্যমে কিংবা ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে পেমেন্ট ণিত এরপর empowr চালু করল ইথিরিয়াম এর মাধ্যমে তারা পেমেন্ট সিস্টেম এটির মাধ্যমে তারা বেশকিছু দিন পেমেন্ট চালু রেখেছিল আমি নিজেও ইথিরিয়াম এর মাধ্যমে পেমেন্ট নিয়েছিলাম কয়েক বার, যদিও পরবর্তী সময়ে এম্পিয়ার নিজেই ডিজিটাল কারেন্সি তারা তৈরি করে যেগুলো দ্বারা তারা পেমেন্ট দিয়ে থাকতো পরবর্তীতে সেই কয়েন দিয়ে তারা কোনোভাবেই উন্নতি না করতে পেরে সেটিও একসময় বন্ধ করে দেয় ।

তবে এখন শোনা যাচ্ছে এম্পিয়ার নাকি আবার আগের মতোই পেপাল ও ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে পেমেন্ট সুবিধা দেবে পাশাপাশি তাদের নিজস্ব কয়েন থাকবে বিট কয়েনের মতো যেটির মাধ্যমে তারা পেমেন্ট দিয়ে থাকবে এমনটাই এখন শোনা যাচ্ছে ।



Empowr beta launch কবে হবে?


এম্পয়ার কোম্পানি যখন কয়েক বছর কোনভাবেই আর লাভের মুখ দেখতে ছিল না কয়েক বছর শুধু লস দিয়ে যাচ্ছিলো ঠিক তখনই তারা সিদ্ধান্ত নেয় তারা নতুনভাবে তাদের কোম্পানিকে অনলাইনে নিয়ে আসবে এরই ধারাবাহিকতায় কোম্পানিটি ঘোষণা দেয় তারা empowr beta version launch করবে এমন খবরের ভিত্তিতে অনেকেই আশায় বুক বেঁধে আছে যদিও 2019 সালে বলেছিল তারা বেটা ভার্শন লঞ্চ করবে সেটি সম্ভব হয়নি বিভিন্ন বাধ্যবাধকতার কারণে পরবর্তীতে তারা বলেছিল 2020 সালে তারা এম্পিয়ার বেটা ভার্শন লঞ্চ করবে ।

সেটিও তারা করতে পারেনি বিভিন্ন কারণে এরপর তারা অফিশিয়াল ভাবে ঘোষনা দেয় 2021 সালে অবশ্যই তারা empowr বেটা ভার্শন লঞ্চ করবে যাতে করে সবাই আগের থেকে আরও বেশি পরিমাণে ইনকাম করতে পারবে এমনটাই বলা হয়েছিল এই কোম্পানিটির পক্ষ থেকে সেটিও ওই সময় সম্ভব হয়নি ।

এখন 2022 সাল চলতাছে এম্পিয়ার এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এ বছরই তারা তাদের বেটা ভার্শন টি চালু করবে এই ভাষণটি চালু করলে এম্পেয়ার হবে আগের থেকে আরও আকর্ষণীয় ও এই মার্কেটপ্লেস থেকে আরো আগের থেকে অনেক বেশি ইনকাম করা যাবে এমনটাই বলেছে এই কোম্পানিটির পক্ষ থেকে, তবে একটি বিষয় লক্ষণীয় 2022 সালের কোন মাস থেকে তারা empowr beta version launch করবে সেটি কিন্তু এখনো নিশ্চিত করেনি ।

এখন অনেকে আবার হতাশ হতে পারেন আসলে হতাশ হওয়ার কিছু নেই পৃথিবীর যত বড় বড় কোম্পানি রয়েছে তাদের যে ওয়েবসাইট গুলো রয়েছে সে গুলোকে কোডিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্লান ধারা তৈরি করতে একটু সময় লাগে এটা আমরা যারা ওয়েব ডেভলপার রয়েছি আল্লায় দিলে তারা বুঝতে পারি কিন্তু কথা হচ্ছে সাধারণ মানুষ যারা রয়েছেন হয়তোভা তারা এ বিষয়টা বুঝতে পারেনা ।

এম্পাওয়ার সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করে পরবর্তী আর্টিকেলটি দেখে নিতে পারেন ।

আর এই নতুন প্ল্যানিং-এর সেই কারণেই মূলত এই কোম্পানির বেটা ভার্শন আসতে একটু দেরি হচ্ছে তবে কোম্পানিটি যেহেতু রিয়েল কোনদিনই যেহেতু তারা পেমেন্ট নিয়ে কারো সাথে প্রতারণা করেনি সবাইকে কাজের বিনিময়ে পেমেন্ট দিয়েছে । শুধুমাত্র পুনরায় ঢালাওভাবে নিজেদেরকে নতুনভাবে সাজিয়ে তারা এখন কম্পানি পুনরায় চালু করার অপেক্ষায় রয়েছে তো বুঝতেই পারতেছেন এখন আমরা যদি একটু অপেক্ষা করি তাহলেই কেবল empowr থেকে ইনকাম করা আমাদের জন্য সম্ভব হবে । কারণ এটি একটি গুগোল কিংবা ফেসবুক বা আপেলের মত অথবা অ্যামাজনের মতোই বড় কোম্পানি ।

যখনই এম্পিয়ার কোম্পানি তাদের নতুন বেটা ভার্শন লঞ্চ করবে ঠিক তখনই আপনাদের মাঝে নতুন আর্টিকেল দিয়ে দেওয়া হবে যেটির মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন এম্পাওয়ার এর সর্বশেষ ইনকাম আপডেট এজন্য সব সময় আমাদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে থাকুন । এছাড়াও আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এম্পিয়ার নিয়ে নতুন একটি ভিডিও পাবলিশ করা হয়েছে চাইলে এখানে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন ।

Empowr এ কিভাবে একাউন্ট খুলতে হয়?


খুব শিগগিরই এ বিষয়ে তথ্য পাবেন এখানে ইনশাআল্লাহ 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ