Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Blaze app এর মাধ্যমে 5 লক্ষ টাকা পকেটএ নেওয়ার সুযোগ

পৃথিবীর উন্নতশীল দেশগুলোর দিকে তাকালেই দেখা যায় যেখানে ডিজিটাল অনেক কিছুই রয়েছে যেমন পেপাল ফেসবুক ইউটিউব টিকটকের মতো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া কিংবা পেমেন্ট গেটওয় সার্ভিসগুলো ।

সেই উন্নতশীল দেশের দিকে তাকালে লক্ষ করা যায় এই বিষয়গুলো তাদের কাছে রয়েছে যেটি আমাদের কাছে এতদিন ছিল না থাকবে কী করে আমাদের দেশ তো আর আগে ডিজিটাল ছিল না । 

বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের প্রধান রুপরেখাই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া সেই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সরকার নতুন একটি সার্ভিস উন্মোচন করেছে যেটির মাধ্যমে পেপাল কিংবা পেটিএম এর মতো লেনদেন করা যাবে ডিজিটাল ভাবে ।

অনেক সময়ে বা অতীতকালে দেখা গেছে বেশি পরিমাণে টাকা-পয়সা যদি পকেটে রাখা হতো তাহলে কিন্তু পকেটমাররা কেটে নিয়ে যেত কিংবা অনেক সময় হারিয়ে যেত সে দিক দিয়ে চিন্তা করলে ডিজিটাল মাধ্যম হতে পারে সেরা উপায় ।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশন নামে একটি ডিজিটাল লেনদেন এর জন্য এপ্লিকেশন তৈরী করা হয়েছে যেখানে 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত পকেটে নেওয়া যাবে ।

কাদেরকে উদ্দেশ্য করে নতুন এই ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে এটি কাজ করে থাকবে বিস্তারিত জানার জন্য সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার অনুরোধ রইল ।




ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশন কি ধরনের অ্যাপ ?


ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশনটির মূল কার্যক্রম বা এটি যে কারণে বা যাদের উদ্দেশ্যে করে বানানো হয়েছে বিশেষ করে তারা হচ্ছেন প্রবাসীরা যারা বিদেশে পায়ের ঘাম মাথায় ফেলে উপার্জন করেন তাদের টাকা যেন দেশে আসতে কোনরকম সমস্যা না হয় এই উদ্দেশ্যে মূলত এই অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করা হয়েছে ।


এই অ্যাপ্লিকেশনটি কি নিরাপদ ?


অবশ্যই আপনার এই প্রশ্নটিই করার অনেকগুলো যৌক্তিক কারণ রয়েছে এর ভিতর উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে যেহেতু বিদেশে যারা থাকেন তারা কষ্ট করে অর্থ উপার্জন করেন সেটা যদি ঠিকঠাক মত বাংলাদেশ এ না পৌঁছায় তাহলে তো আসলে কষ্টের শেষ নেই । অনেক সময় দেখা যায় বিদেশ থেকে টাকা পাঠাতে গেলে হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাঠিয়ে থাকেন অনেক প্রবাসী অনেক সময় কিন্তু প্রতারিত হওয়ার ঘটনা ঘটে থাকে । তবে সুখবর হল ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশনটি যেহেতু সরাসরি বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অ্যাপ্লিকেশন সেহেতু এখানে প্রতারিত হওয়ার আসলে কোনো সুযোগ নেই বললেই চলে ।


টাকা কি সাথে সাথে পাঠালে পাবে ?


এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কারণ ব্যাংকে টাকা পাঠালে কিন্তু দুই থেকে তিন দিন অনেক সময় সময় লেগে যায় তারপর যদি সরকারি ছুটির দিন থাকে তাহলে তো কথাই নেই । তবে সবাই জেনে খুশি হবেন এই অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে মাত্র 5 সেকেন্ড সময় লাগবে টাকা আদান প্রদান করতে । এবং এই অ্যাপ্লিকেশনটি লেনদেন করা যাবে সপ্তাহের 7 দিন দিনের 24 ঘন্টা তো বুঝতেই পারতেছেন এটি কতটা সুবিধাজনক ।


একবারে কত টাকা পাঠানো যাবে ?


এখন দেখা যাচ্ছে যে দেশে যেগুলো ডিজিটাল ওয়ালেট রয়েছে অর্থাৎ বিকাশ নগদ, সেখানে কিন্তু মাত্র 25 হাজার টাকা একবারে ট্রানজেকশন করা যায় । সুখের কথা হচ্ছে ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে একবারে সর্বোচ্চ 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করা যাবে ।


এই অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে টাকা পাঠালে কি কোন বোনাস পাওয়া যাবে ?


এরকমটা তো আগে থেকেই চলে আসতেছে অর্থাৎ ব্যাংকে যদি কোন প্রবাসীরা রেমিটেন্স পাঠান তাহলে কিন্তু একটা প্রণোদনা বোনাস স্বয়ংক্রিয়ভবে দেওয়া হয়ে থাকে । ঠিক ওরকমই এই অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে যেকোন দেশ থেকে দেশে রেমিটেন্স পাঠালে অটোমেটিক টু পার্সেন্ট পর্যন্ত প্রণোদনা বোনাস পাওয়া যাবে ।


এটি কি পেপাল ও পেটিএম এর বিকল্প ?


অনেকটা বলা যেতে পারে ওরকমই অর্থাৎ যেহেতু এটা ইন্টারন্যাশনাল ডিজিটাল একটি ওয়ালেট যেটি বাংলাদেশ থেকে পরিচালিত হয়ে থাকবে । সেওতো এটিকে পেপাল ও পেটিএম এর সাথে তুলনা করা যেতে পারে ।


এ অ্যাপ্লিকেশনটি থেকে কি টাকা ইনকাম করা যাবে ?


বর্তমান সময়ে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে লক্ষ করলে দেখা যায় বিভিন্ন ডিজিটাল ওয়ালেট গুলো বিভিন্ন সময় রিওয়ার্ড এর মাধ্যমে জনগণকে অর্থ প্রদান করে থাকে যেমনটা বিকাশ করতাছে । ব্লেজ অ্যাপ্লিকেশনটিতে এ ধরনের সুযোগ-সুবিধা এখনো আছে কিনা জানা নেই তবে ভবিষ্যতে হয়তো বা অ্যাপ্লিকেশনটি কে জনপ্রিয় করার জন্য এরকম অফার নিয়ে আসতে পারে ব্লেজ কর্তৃপক্ষ ।


এটি কিভাবে কাজ করে থাকে ?


এটি মূলত তিনটা স্টেপ এ কাজ কমপ্লিট হয়ে থাকে অর্থাৎ ব্লেজ এর মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকে বা অন্য ব্যাংকে যে টাকাগুলো আসবে সেখান থেকে কিউ ক্যাশের মাধ্যমে যার টাকা সে চাইলে উঠিয়ে নিতে পারবে ।


কিভাবে একাউন্ট খুলবো ও অ্যাপটি পাব ?


কিভাবে একাউন্ট খোলা যায় বা কিভাবে অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করা যায় এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত বাবে কিছু জানানো হয়নি বা জানতে পারিনি । এ বিষয়ে যখনই জানানো হবে ঠিক তখনই নতুন একটি আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের জানিয়ে দেয়ার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ । এজন্য সব সময় ওয়েবসাইটটির সাথেই থাকবেন আশা করি । ব্লেজ এই নতুন ডিজিটাল অ্যাপ্লিকেশনটি সম্পর্কে আরো জানতে চাইলে এখানে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন ।





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্যসমূহ