Ticker

6/recent/ticker-posts

ফ্রী গিফট কার্ড পাওয়ার সহজ উপায় | গিফট কার্ড কি?

একটি দালান উঠাতে গেলে প্রয়োজন পড়ে কিছু শক্ত পিলারের সেই পিলারের উপরে দাঁড়িয়ে থাকে একটি বিল্ডিং যদি পিলার শক্ত না হয় তাহলে বিল্ডিং যেকোনো সময় ভেঙে পড়তে পারে এটাই হলো বাস্তব সত্য যেটা আমরা বাস্তবে প্রমাণ দেখেছি রানা প্লাজা ধসের সময় ।ঠিক এরকমই ভালোবাসার ভিতরে দরকার হয় দেওয়া-নেওয়ার কিছু বিষয় যদি ভালোবাসার ভিতরে আদান-প্রদান না হয় তাহলে সেই ভালোবাসা বেশি দূর এগোয় না ।

একটা সময় ছিল মানুষ মানুষকে অন্তর দিয়ে ভালোবাসতো কিছু তেমন দিতে হতো না এখন যুগ পালটে গেছে এখন দেওয়া নেওয়া ছাড়া ভালোবাসা আসলে তেমন হয়না লক্ষ করে দেখুন আপনি যাকে ভালোবাসবেন ওই মানুষটাকে অন্য আরেকজন ভালবাসতে পারে এখন দেখা গেলো আপনি তাকে পাগলের মতো ভালোবাসেন ওই মেয়েটা হয়তো বা আপনাকে তটা ভালোবাসে না মেয়েটা, হয়তোবা গিফট দেওয়া নেওয়ার কারণে ভালোবাসা টা একটু গভীরতা বাড়তে পারে এটা ছেলে মেয়ের ক্ষেত্রে হোক কিংবা বন্ধুত্বের ক্ষেত্রে অথবা বাপ মা ভাই বোন যে কোন সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিন্তু এটা প্রযোজ্য হতে পারে ।

বিষয়টা যদি আপনি বুঝতে না পারেন আরও একটু খুলে বলি আপনি যাকে ভালোবাসেন সে আপনার ফ্যামিলির কেউ হতে পারে কিংবা বন্ধু হতে পারে অথবা পছন্দের মানুষ হতে পারে এখন দেখা গেল ওই মানুষটারে আরেকজন কম ভালোবাসে কিন্তু তাকে তার প্রয়োজনের সময় কোন একটা প্রয়োজনীয় জিনিস উপহার দিলো তখন দেখবেন ওই মানুষটা আপনার প্রতি তেমন একটা আগ্রহ থাকবে না অন্য যে মানুষটা তাকে গিফট দিয়েছে তার প্রতিবেশী আগ্রহ দেখাতে থাকবে এটি 99 শতাংশ সময় হয়ে থাকে

কাছের মানুষগুলো যতই আপন হোক না কেন যদি আপনি তাকে কিছু দিতে না পারেন তাহলে তার থেকে আসলে তেমন কিছু পাওয়ার আশা হবে বোকামি আর উনি কখনো দিবেও না যদি দিয়ে থাকে এরকম মানুষের সংখ্যা পৃথিবীতে খুবই কম রয়েছে আপনি যাকে পাঁচ টাকা দিতে পারবেন তখন উনি আপনাকে দু টাকা দেওয়ার চেষ্টা করবে উদাহরণস্বরূপ এমনটাই হয়ে থাকে এটি বুঝতে পারবেন যাদের বয়স 25 থেকে 30 কিংবা তারও উপরে রয়েছে ।

তবে এমন মানুষও পৃথিবীতে পাওয়া যায় এটি ভুলে গেলে চলবে না ওই মানুষটাকে আপনি যত কিছু দেন না কেন সে কিন্তু কখনো আপনাকে কিছু দিবে না আপনার থেকে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে শুধু নিয়ে যাবে, যদিও এই ধরনের মানুষের সংখ্যাও এখন পৃথিবীতে কম নয় এদের থেকেও সাবধান থাকাটা খুব প্রয়োজন । এবং পৃথিবীতে এখন বেশিরভাগ মানুষই এটি করে থাকে যদি আপনি তাকে কিছু দেন বিনিময় সে আপনাকে কিছু দেবে । (এটি মানা R না মানা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার)



স্বামী-স্ত্রীর ক্ষেত্রও কিন্তু গিফট দেওয়া ও নেওয়ায় ভালোবাসা বৃদ্ধি পায় এটা অনেকে জানেন কিনা জানিনা এই বিষয়টা কিন্তু পরীক্ষিত অর্থাৎ স্বামী যদি স্ত্রীকে ভালোবেসে কিছু উপহার দেয় আবার পরবর্তীতে যদি স্ত্রী স্বামীকে ভালোবেসে তার পছন্দের কিছু উপহার দেয় তাহলে এতে করে তাদের মধ্যে পরস্পরের প্রতি পরস্পরের ভালোবাসা বৃদ্ধি পায় এটা কিন্তু পরীক্ষিত ভাবে প্রমাণিত ।

লক্ষ করলে দেখবেন যে সংসারে স্বামী স্ত্রীর মাঝে ভালোবাসা রয়েছে একটু বেশি এনালাইজ করে দেখেন ওই সংসারে কিন্তু স্বামী স্ত্রীকে তার চাহিদা মত দেওয়ার চেষ্টা করে অবশ্যই নিজের স্বার্থের ভিতরে আবার স্ত্রী ও তার নিজের স্বার্থের ভিতরে স্বামীকে কিছু দেওয়ার চেষ্টা করে থাকে এতে কিন্তু তাদের মধ্যে একটি ভালোবাসার সম্পর্ক এগিয়ে যায় ।

আরেকটি জিনিস লক্ষ্য করলে দেখবেন যে সংসারে স্বামী স্ত্রীর ভিতরে ঝগড়াঝাঁটি অনেক বেশিরভাগ সময় লেগেই থাকে যে সংসারে স্বামী তার স্ত্রীর চাহিদা মত গিফট প্রদান করে না কিংবা স্ত্রী ও স্বামীর চাহিদা অনুযায়ী গিফট প্রদান করে না ওই সংসারে বেশি অশান্তি লেগে থাকে, এমনটাই তথ্য উঠে এসেছে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের বিশ্লেষণে ভিত্তিতে ।

এখনতো বেশিরভাগ মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ইমু কিংবা ডিজিটাল বিভিন্ন মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক সহ অন্যান্য ব্যবহার করে থাকেন এর ভিতরে অনেকে সেরে ফেলেন সর্টকাটে তার প্রিয়জনকে উপহার দেওয়ার কাজটি যেটি সেকেন্ডের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে ।

একটা সময় দেখতাম পূর্বে যখন একটি ছেলে একটি মেয়েকে ভালবাসত তখন তাকে ডাইরি বিভিন্ন কলম কিংবা আরও প্রয়োজনীয় পুতুল তাজমহল ইত্যাদি এই ধরনের উপহার সামগ্রী গুলো তার গার্লফ্রেন্ডকে উপহার দিত কিংবা গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ডকে উপহার দিত পরবর্তীতে দেখা গেছে গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ডকে কিংবা বয়ফ্রেন্ড গার্লফ্রেন্ডকে একে অপরকে যে উপহারগুলো দিয়েছিল গুলো দেখে মনে করতো ভালোবাসার মানুষটি আমার সাথেই রয়েছে এখন এই জিনিসটা অনেকটা উঠে গেছে বললেই চলে ।

যাইহোক এখন ডিজিটাল এই যুগে সেই বিষয়টিকে আরেকটু নতুনভাবে সাজিয়ে তোলা যেতে পারে এখন সেই উপহার গুলোকে প্রিয়জনের কাছে পৌঁছে দিয়ে আরো ভালোবাসা গভীর করতে চাইলে এখন ডিজিটাল কার্ডের ব্যবস্থা রয়েছে এখন চাইলে যে কেউ তার প্রিয়জনকে ডিজিটাল উপহার দিয়ে থাকে কিংবা দেওয়া যেতে পারে ।

অর্থাৎ বন্ধুরা আপনারা চাইলে ডিজিটাল গিফট কার্ড এখন প্রিয়জনকে উপহার দিতে পারেন কিংবা দেওয়া যেতে পারে কারণ যুগের সাথে সাথে সব কিছুরই কিন্তু আল্লায় দিলে পরিবর্তন হয়ে যায় কোন টি কিছুদিন আগে আবার কোনোটি কিছুদিন পরে ।

আজকে আমরা এই আর্টিকেলে জানবো ডিজিটাল গিফট কার্ড কি? ডিজিটাল গিফট কার্ড কিভাবে পাওয়া? যায়? ডিজিটাল গিফট কার্ড কিভাবে প্রিয়জনকে উপহার দিতে হয়? ইত্যাদি ।



ফ্রী গিফট কার্ড পাওয়ার সহজ উপায় | গিফট কার্ড কি?


গিফট কার্ড কাকে বলে?


গিফট কার্ড একরকম হয় না গিফট কার্ড অনেক প্রকারের হয়ে থাকে যেমন কিছু গিফট কার্ড হয়ে থাকে অনলাইন থেকে কেনাকাটার জন্য কিছু গিফট কার্ড হয়ে থাকে অনলাইন থেকে ইন্টারটেইন্টমেন্ট পাওয়ার জন্য কিছু গিফট কার্ড হয়ে থাকে অনলাইনে বিভিন্ন পেমেন্ট গেটওয় এর জন্য ।

উদাহরণস্বরূপ বলা যায় আমাজন গিফট কার্ড দিয়ে আপনি চাইলে অনলাইনের মাধ্যমে কেনাকাটা করতে পারবেন অনলাইনের মাধ্যমে আরও আপনি অ্যামাজন প্রিমিয়াম সার্ভিস উপভোগ করতে পারবেন এই আমাজন গিফট কার্ড দিয়ে আরো বেশ কিছু কাজ করা গিয়ে থাকে ।

আইটিউন গিফট কার্ড এটি হলো অ্যাপেলের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান অর্থাৎ অ্যাপেল আইফোন যারা ব্যাবহার করেন তাদের প্রয়োজন হয়ে থাকে এই আইটিউন গিফট কার্ড এটি দিয়ে মূলত তারা বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করে থাকে ।

পেলেইসটোর গিফট কার্ড গুগল প্লে স্টোর এ যদি কোন এপ্লিকেশন বানিয়ে সেটিকে আপলোড করতে হয় তাহলে অবশ্যই গুগলের কে ন্যূনতম 25 ডলার পেয়ে করতে হয় এটি জন্য গুগল প্লে গিফট কার্ড প্রয়োজন হয়ে থাকে যেটির মাধ্যমে কিন্তু এই প্রয়োজনীয় পেমেন্ট করে দেওয়া যায় যদিও গুগল প্লে গিফট কার্ড এর আরো অন্যান্য কাজ রয়েছে ।

নেটফ্লিক্স ও স্পর্টি এই গিফটগুলো মূলত বিভিন্ন ইন্টারটেনমেন্ট নেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে অর্থাৎ অনলাইনে থেকে এক্সট্রা ভাবে কিছু ইউনিক ইন্টারটেনমেন্ট পাওয়ার জন্য এই গিফট কার্ড গুলো ব্যাবহার করে সেই ইন্টারটেনমেন্ট গুলো নেওয়া হয়ে থাকে ।

পেপাল গিফট কার্ড অনেক দেশে সাপোর্ট করে আবার অনেক দেশে সাপোর্ট করে না চাইলে পেপালের গিফট কার্ড ব্যবহার করে অতি প্রয়োজনীয় কাজগুলো করে নেওয়া যায় খুব সহজে এছাড়াও পেপাল যেহেতু খুব জনপ্রিয় একটি পেমেন্ট মেথড পেপালের গিফট কার্ড পৃথিবী জুড়ে ব্যাপক ভাবে জনপ্রিয়তা রয়েছে ।


গিফট কার্ড দেখতে কেমন?



গিফট কার্ড বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন আকারের হয়ে থাকে তবে সাধারণত গিফট কার্ড গুলোর আকৃতি এটিএম কার্ড এর মতনই হয়ে থাকে যেটাকে আমরা বিভিন্ন ব্যাংকে থেকে পেয়ে থাকি ঠিক ওরকম এটিএম কার্ড এর মতনই বিভিন্ন গিফ্ট হয়ে থাকে ।

উন্নতশীল দেশগুলোতে বিভিন্ন শপিংমলে গিফট কার্ড অফলাইনে পাওয়া যায় অর্থাৎ বিভিন্ন শপিংমলে কিংবা বড় বড় দোকানে গিফট কার্ড বিক্রি করে থাকে যদিও আমাদের দেশে তেমন একটা এরকম দৃশ্য চোখে পড়ে না তবে উন্নতশীল দেশগুলোতে অফলাইনে বিভিন্ন কোম্পানির গিফট কার্ড গুলো বিক্রি করে থাকে ।

তবে সতর্ক থাকা খুব জরুরী আপনি যদি অনলাইনের মাধ্যমে গিফট কার্ড কিনতে চান যে কোন কোম্পানির হতে পারে আপনার প্রয়োজন মত সেটা হতে পারে আপনার নিজের প্রয়োজনে কিংবা হতে পারে আপনার প্রিয়জনের প্রয়োজনে যেটাই হোক না কেন যে গিফট কিনতে চাচ্ছেন সেই গিফট কার্ড টি আপনি যেই কোন ই-কমার্স সাইট থেকে কিংবা বিভিন্ন গিফট কার্ড ওয়েবসাইট থেকে কিনবেন আশা করছেন অবশ্যই সেটি যাচাই করে নিবেন সেই ওয়েবসাইটগুলো রিয়েল কিনা? অন্যথায় আপনি পেমেন্ট করে ঠকে যেতে পারেন এজন্য কেনার আগে যে কোন জিনিস অবশ্যই যাচাই করে নেওয়া টা হল বুদ্ধিমানের কাজ ।


গিফট কার্ড কি এটিএম কার্ডের মত ব্যবহার করতে পারব?


গিফট কার্ড অনেকটা এটিএম কার্ডের মত দেখা গেলেও গিফট কার্ড কিন্তু এটিএম কার্ডের মত বিভিন্ন এটিএম বুথ থেকে কখনও টাকা উত্তোলন করা যাবে না এটি কিন্তু মাথায় রাখাটা অতি জরুরী গিফট কার্ড শুধুমাত্র অনলাইনে ব্যবহার হয়ে থাকে গিফট কার্ড কখোনই এটিএম কার্ডের মত এটিএম বুথ থেকে টাকা উঠানো যায়না গিফটের শুধুমাত্র অনলাইনে ব্যবহার করা যায় । 

ফ্রি তে কি গিফট কার্ড পাওয়া যায়?


বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কিংবা অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে ফ্রিতে গিফট কার্ড নেওয়ার বিশেষ সুযোগ দেওয়া হয়ে থাকে তবে এগুলো থেকে সবাই গিফট কার্ড কখনো পায় না হয়তো দেখা গেল পাঁচ হাজার জনের জন্য ফ্রী গিফট কার্ড ঘোষণা করা হলো লটারির মাধ্যমে যেকোনো একজনকে এই ফ্রী গিফট কার্ড দেওয়া হবে তো এখন আপনি বুঝেন ফ্রিতে গিফট কার্ড দেওয়া হয় এটা ঠিক তবে সবার পাওয়ার সুযোগটা কতখানি রয়েছে এটি আপনাদের মাঝে বিবেচনার জন্য বিষয়টি ছেড়ে দিলাম ।

গিফট কার্ড নিয়ে আগামীতে আল্লায় দিলে আরো বিস্তারিত আর্টিকেল আসবে এই জন্য নির্মিত আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন যারা গিফট কার্ড প্রেমী রয়েছেন, তবে কিছু বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী তুলে ধরা হয়েছে এগুলো মানা আর না মানা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার ।

গিফট কার্ড সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ