Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

রমজান ২০২২ কোন মাসের কত তারিখে হবে? | রমজানের সময় সূচি 2022

২০২২ সালের রমজান কত তারিখে


ইসলাম পাঁচটি স্তম্ভ বা খুটির উপর স্থাপিত । তারমধ্যে রমজান বা রোজার অবস্থান তৃতীয়তম । আরবি অথবা হিজরি সনের মাসগুলো চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল যার কারণে কোন মাস এবং কোন বছর কোন দিন দিয়ে শুরু হবে এটা আগে থেকে বলাটা অনেকটাই মুশকিল । তবে বর্তমানে ইসলামিক কমিটি রয়েছে ঈদুল ফিতর এবং শাওয়াল মাসের চাঁদ কবে দেখা যাবে সে বিষয়ে তারা একটি ধারণা দিয়ে থাকে । ( ২০২২ সালের রমজান মাস কবে )


রোজা একটি বাংলা শব্দ যেটার উৎপত্তি আরবি শব্দ সাওম থেকে এসেছে । রোজা শব্দটির ইংরেজি প্রতিশব্দ হচ্ছে রামাদান । সুবাহে সাদেক থেকে শুরু করে সূর্যাস্ত পর্যন্ত পানাহার , অশ্লীলতাপাপাচার এবং সকল প্রকার ভোগ বিলাস থেকে বিরত থাকা । অর্থাৎ সূর্য উদয় হওয়ার আগ মুহূর্ত থেকে সূর্য অস্ত যাওয়া পর্যন্ত পানাহার এবং খাদ্য গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকাকে ইসলামে রোজা বা সাওম বলা হয় । ( সিয়াম কাকে বলে )


 সাওম শব্দটি আরবি শব্দ থেকে এসেছে যার বাংলা অর্থ হচ্ছে বিরত থাকা । ইসলামের বিধান অনুসারে প্রতিটি প্রাপ্তবয়স্ক মুসলমানের জন্য রমজান মাসের প্রতিটি রোজা রাখা ফরজ । ইসলামের শরীয়ত মোতাবেক ফরজ কাজ গুলোকে অবশ্যই পালন করতে হয় । আর যার কারণে মুমিনগণদেরকে রোজা ভঙ্গ করা অথবা রোজা থেকে বিরত থাকার কোন সুযোগ নেই । রমজানের প্রতিটা রোজা একজন মুসলমানের পক্ষে পালন করা তাদের দায়িত্ব এবং কর্তব্যের একটি অন্যতম ইবাদত । ( রোজার ফরজ সমূহ )


রমজান ২০২২ কোন মাসের কত তারিখে হবে? | রমজানের সময় সূচি 2022



২০২২ সালের শবে বরাত কত তারিখ


যদি আমরা বের করতে পারি যে 2022 সালের রমজান মাস কোন মাসে কোন তারিখে অনুষ্ঠিত হবে তাহলে কিন্তু আমরা খুব সহজে এটাও নির্ণয় করতে পারব যে 2022 সালের শবে বরাত কত তারিখে অনুষ্ঠিত হবে । রমজান অনুষ্ঠিত হওয়ার পূর্ববর্তী মাসের 15 তারিখে শবে বরাত পালিত হয়ে থাকে । ( ২০২২ সালের শবে বরাত কত তারিখে )



বাংলাদেশ এবং ভারত সহ উপমহাদেশে অবস্থিত দেশগুলোতে রমজান শুরু হওয়ার তার পূর্ববর্তী মাসের 15 তারিখে উদযাপন করা হয় সবে বরাত নামক ইসলামিক অনুষ্ঠান । সহজ ভাষায় বলতে গেলে রোজা শুরু হওয়ার 15 দিন আগে শবে বরাত উদযাপন করা হয়ে থাকে । ( শবে বরাত আরবি মাসের কত তারিখ )



এখন যদি আমরা বলতে চাই 2022 সালের শবেবরাত কোন মাসের কোন তারিখে অনুষ্ঠিত হবে তাহলে আমাদেরকে নির্ণয় করতে হবে যে 3 এপ্রিল 2022 সাল এই দিনটির 15 দিন পূর্বের সময় । শাবান মাসের 15 তারিখ অর্থাৎ 3 এপ্রিল 2022 থেকে 15 দিন পূর্বের তারিখ হতে পারে 18 কিংবা 19 মার্চ । ( শবে বরাত কি বিদআত )


শবে কদর কত তারিখে ২০২২?


ইসলামিক শরীয়ত মতে মুমিনগণদের কাছে লাইলাতুল কদর দিবাগত রাতটি শবে কদর নামে পরিচিত । লায়লাতুল কদর বলতে হাদিসে উল্লেখ করা হয়েছে রমজান মাসের শেষ দশ দিনের মধ্যে যেকোনো বেজোড় রাত ( ২১ , ২৩ , ২৫ , ২৭ ,২৯ ) হতে পারে । ইসলামিক আলেম-ওলামাগণদের মতে শেষের দশ দিনের যেকোনো একদিন পালন করা যাবে লায়লাতুল কদর তবে সাধারণত মুসলিমগণ রমজানের 27 তম রাতে শবে কদর পালন করে থাকে । ( শবে কদর কত তারিখে ২০২২ )



অর্থাৎ সবাই আল্লাহ পাকের কাছে নিজেকে সমর্পণ করে রাসুলের সুন্নত অনুযায়ী আল্লাহ পাকের এবাদত করে কাটিয়ে দেয় সারা রাত । তবে আপনি চাইলে রমজানের শেষের দশ দিনের বেজোড় রাতগুলোতে এবাদত করতে পারেন এক্ষেত্রে লাইলাতুল কদরের সওয়াব পাওয়া যাবে । ( শবে কদর সম্পর্কে হাদিস )



যার কারণে শেষ দশদিনের বেজোড় রাতগুলোর মধ্যে টার্গেট করে যেকোনো একটি রাতকে ধরা যেতে পারে না । এটা বেজোড় 10 দিনের মধ্যে যেকোনো একদিন হতে পারে । এটা নিজের মন মত করে পালন করা যাবে না কারণ ইসলামের শরীয়তের বাহিরে নিজের মন মত কিছু করা যাবে না । ( লাইলাতুল কদর কোন রাতে )


রোজার ফজিলত এবং তাৎপর্য


দ্বিতীয় হিজরির শাবান মাসে আল্লাহ তায়ালা তাঁর বান্দাদের জন্য মদিনায় রোজা অথবা সাওম সংক্রান্ত একটি বাণী নাযিল করেছিলেন সেটিতে বলা ছিল , হে ঈমানদারগণ , তোমাদের ওপর সাওম বা রোজাকে ফরজ করে দেওয়া হল যেভাবে তোমাদের পূর্ববর্তী মানুষদের উপর ফরজ করা হয়েছিল । ( রোজার তাৎপর্য ও শিক্ষা ) 



সাওম অথবা রোজার মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালার নৈকট্য অর্জন করা যায় । সাওম বা রমজানের মাধ্যমে মুমিনগন ভেতরে আত্মসংযম এর সৃষ্টি হয়ে থাকে । আত্মসংযম বলতে বুঝায় ভ্রাতৃত্ব অর্থাৎ মুসলমানগন যখন ইফতারের পূর্বে একত্রিত হয়ে অপেক্ষা করে সূর্যাস্তের শেষ প্রহর অথবা মাগরিবের আজানের । ( রমজানের তাৎপর্য )



এখানে মুমিনগণ একত্রিত হওয়ার কারণে তাদের ভিতর ভাতৃত্ববোধ এবং বন্ধুসুলভ আচরণের প্রকাশ পায় । এখানে অবস্থান করে ধনী-গরীব নির্বিশেষে সকলেই । এই বিষয়টি হয়তো আগে আপনিও জানতেন না । ( রমজানের গুরুত্বপূর্ণ আমল ) 



এছাড়াও মহান আল্লাহতালা আরো বলেছেন তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি এ মাস পায় সে যেন অবশ্যই রোজা রাখে সেই সাথে সৃষ্টিকর্তা আমাদেরকে এই ইবাদত পালন করার কঠোর নির্দেশ দিয়েছে । রমজানে রয়েছে অনেক বরকত । ( রমজানের ইবাদত সমূহ )



 আপনারা অনেকেই জেনে অবাক হতে পারেন  যে বিভিন্ন চিকিৎসক অথবা বিজ্ঞান দ্বারাও প্রমাণিত রমজানের রোজা গুলো রাখার কারণে শারীরিক এবং মানসিক অনেক উপকার পাওয়া যায় । শরীর থেকে নির্গমন হয় বিভিন্ন রোগের অর্থাৎ আপনি যদি রোগাক্রান্ত থাকেন তাহলে রোজা রাখার ফলে আপনার ভেতরে থাকা রোগটি আল্লায় দিলে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা থাকে ইনশাল্লাহ । ( রমযানের উপকারিতা )



২০২২ সালের রমজান মাস কবে ?


হিজরি সনের মাসগুলোকে আগে থেকেই কখনো বলে দেওয়া যায় না , যার মূল কারণ হলো হিজরী সন গুলো চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল অন্যদিকে ইংরেজি মাসগুলোকে অনেকটা আগে থেকে বলে দেওয়া সম্ভব কারণ ইংরেজি মাস গুলোকে নির্ধারণ করার জন্য চাঁদ দেখার উপর কোন নির্ভরশীল হতে হয় না । হিজরি সনের মাসগুলো 29 থেকে 30 দিনের হয়ে থাকে যার কারণে ইসলামের বছরগুলো সাধারণত 355 থেকে 365 দিনের হয়ে থাকে । ( ২০২২ সালের রমজান কোন মাসে )



কিন্তু ইংরেজি সনের বছরগুলো নির্ধারিত করে 365 দিনের হয় । ইংরেজি বছরগুলো 365 দিনের হওয়ায় ইসলামিক উৎসব এবং ইবাদতের বিশেষ দিনগুলো যেমন ঈদুল ফিতর , ঈদুল আযহা , রমজান , শবে বরাত , শবে কদর এবং এছাড়াও অন্যান্য উৎসবগুলো এবং বিশেষ এবাদত এর দিনগুলো 10 থেকে 11 দিন এগিয়ে যায় । ( ২০২২ সালের রমজানের সময় সূচি )



 2020 সালের পহেলা রমজান বা রোজা শুরু হয়েছিল 25 এপ্রিল , 2021 সালের পহেলা রামাদান শুরু হয়েছিল 14 এপ্রিল তারিখে । পূর্ববর্তী বছরগুলোর রমজান অনুষ্ঠিত হওয়ার হিসাব মোতাবেক আমরা বলতে পারি যে 2022 সালের রমজান এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে । ( বাংলাদেশে রোজা কবে থেকে শুরু ২০২২ )




মুন পেইজ বা মুন সাইট এর মতবাদ অনুসারে 1443 হিজরী অথবা 2022 সালের পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ শেষ হবে 31 মার্চ 2022 তারিখে । নতুন করে রমজান মাসের চাঁদ জন্ম নিবে পহেলা এপ্রিল 2022। পহেলা এপ্রিল 2022 নতুন করে চাঁদ জন্ম নিলেও তখন কিন্তু ওই চাঁদকে পৃথিবী থেকে দেখা যাবে না এবং পর দিন সেই চাঁদের বয়স হবে একদিন থেকে কিছুটা বেশি ।
রোজা কত তারিখে শুরু হবে )



 সেই হিসেবে বলা যায় 2022 সালের 3 এপ্রিল বাংলাদেশে রোজা অনুষ্ঠিত হতে পারে । বাংলাদেশ ব্যতীত অন্যান্য দেশগুলোতে 2 এপ্রিল  2022 তারিখে শুরু হতে পারে রমজান মাস । তবে এটা কিন্তু সম্পূর্ণ চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল । ( প্রথম রোজা কত তারিখ ২০২২ )


এই পোস্টটি আপনারা অন্যান্য মুমিনগণদের কাছে শেয়ার করে দিন তার কারণ হলো এক মুমিন আরেক মুমিনের কাছে রমজানের সংবাদ বা বার্তা পৌঁছে দিতে পারলে সওয়াব পাওয়া যায় ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ