Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

Play free online games to earn money

একটা সময় ছিল যখন মানুষ টাকা দিয়ে বিভিন্ন বাজারে দোকানে গিয়ে পাঁচ টাকা দশ টাকা বিনিময় আধাঘন্টা কিংবা এক ঘণ্টা করে গেম খেলতো আমার নিজেরও এরকম অনেক কিছু মনে আছে । (Online games)

আমার একটি চাচাতো কাকা ছিল তার গেম খেলার অনেক নেশা ছিল অনেক সময় আমাকে নিয়ে বিভিন্ন বাজারে যেত এবং ওখানে গিয়ে সে প্রচুর গেম খেলতে পাঁচ টাকা দশ টাকা আধাঘণ্টা একঘন্টা চুক্তি অনুযায়ী । (best online game)

কিন্তু তার থেকে আমি অনেক ছোট ছিলাম বিধায় বয়সে আমি বিষয়টি বুঝতাম না বা গেম খেলে মানুষ কেন বা কি আনন্দ পায় সেটা আমি কখনো বুঝতাম না কারণ সে আমার ৫ থেকে ৭ বছর বড় ছিল । (Make money online for game)

এখন দিন বদলেছে আগে মানুষ টাকা দিয়ে গেম খেল তো আর এখন গেম খেলে টাকা উপার্জন হয় কি বিষয়টা ইন্টারেস্টিং না । (Internet gaming)

যুগের সাথে সাথে আসলে অনেক কিছুরই আল্লায় দিলে পরিবর্তন হয়ে যায় কারণ কথায় বলে নদীর স্রোত ও সময় কখনো কারো জন্য থেমে থাকে না এগুলো চলে তার আপন গতিতে । (Online game in global)

দুনিয়ার আধুনিক প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে অনেক কিছুই এগিয়ে গিয়েছে পিছিয়ে নেই গেম সেক্টরটি এখন বিশ্বজুড়ে এর বাজার বিশাল আকৃতি ধারণ করেছে । (Online game in India)

শুনতে পাচ্ছি আগামীতে গুগোল নাকি গেম অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে আসতে চলেছে তো বুঝতেই পারতেছেন গেমের মার্কেট টা আসলে কত বড় । (Online game in USA)

কারন গুগল ফেসবুকের মত যেই কোম্পানিগুলো রয়েছে সেই কোম্পানিগুলো কখনো ছোটখাট জাগাতে হাত দেয় না যেখানে ইউজ পরিমাণ গ্রাহক রয়েছে সেখান থেকে ইনকাম করতে পারবে ইউজ পরিমাণ টাকা সেখানে এই ধরনে বড় কোম্পানিগুলো হাত বাড়িয়ে দেয় । (Pubg game make money)

যখন বিশ্বজুড়ে থ্রিজি-ফোরজি সার্ভিস চালু হলো তখন থেকেই আসলে কিছু কিছু মানুষেরা পিসি ও ল্যাপটপ দিয়ে গেম খেলত কারণ পিসি বা ল্যাপটপ সবার কাছে তখন ছিল না । (Free fire earn money)

যখন থেকে মানুষের হাতে হাতে স্মার্টফোন অর্থাৎ এন্ড্রয়েড ফোন কিংবা আইফোন যখন সহজে মানুষের হাতে আসতে শুরু করল যেখানে মানুষ বুঝতে শুরু করল যে পিসি দিয়ে কম্পিউটার দিয়ে যে কাজগুলো করা যায় এই স্মার্টফোনটি দিয়ে সেই একই কাজ করা যায় । (Online game for PC)

তখন যেন মানুষের আগ্রহের শেষ নেই কারণ পিসি দিয়ে কম্পিউটারে গেম খেলতে গেলে বাসায় বসে থাকতে হয় বা অনেক বড় একটি যন্ত্র বহন করতে হয় হাতের ফোনে যদি সেই সুবিধা পাওয়া যায় তাহলে এটিকে না নিতে চায় কে । (Best free online game)

বিশ্ববাজার জুড়ে এখন গেমের বাজার রয়েছে অনেক বড় সাইজ আগে দেখতাম অনেকে গেম খেলত সময় কাটানোর জন্য কিন্তু সময় বদলেছে এখন আস্তে আস্তে করে চলে এসেছে ইনকাম করার অপশন । (play free games online without downloading)

এখন শুধু মানুষ অনলাইনে স্মার্ট ফোন দিয়ে গেম খেলে সময় নষ্ট করেনা গেম খেলার পাশাপাশি টাকা উপার্জন করে নিচ্ছে অনেকেই । (1000 free games to play)

আপনি যে দেশে থাকুন না কেন চাইলে স্মার্টফোন ব্যবহার করে অনলাইন থেকে হাজার হাজার টাকা কিংবা হাজার হাজার ডলার ইনকাম করে নিতে পারবেন অতি সহজে । (Free game download)

কি বিষয়টি বুঝতে কষ্ট হচ্ছে আমি আপনাদেরকে আল্লায় দিলে বিষয়গুলো সহজ করে জানিয়ে দিব যাতে করে আপনারা ঘরে বসে ইন্টারনেট ব্যবহার করে টাকা ইনকাম করতে পারেন । (play free games online)



Play free online games to earn money



সত্যি কি গেম খেলে টাকা ইনকাম করা যায় ?


পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন ভাবে গেম খেলে টাকা উপার্জন করতেছে 1-2 টাকা না লক্ষ লক্ষ টাকা এখন ভেবে দেখুন ওরা যদি গেম খেলে টাকা ইনকাম করতে পারে তাহলে আপনি কেন পারবেন না । তবে এখানে শুধু গেম খেললেই হবেনা কিছু টেকনিক অবলম্বন করতে হবে তাহলে অনলাইন থেকে গেম খেলে টাকা উপার্জন করা যাবে ভয় নেই আমি আছি পুরো আর্টিকেলটি জুড়ে সবকিছু জানতে পারবেন ইনশাআল্লাহ ।


আমিতো ইউরোপ কান্ট্রি তে থাকি আমি কি টাকা ইনকাম করতে পারব ?


কেন পারবেন না বলেন ইউএসএ ইউকে তে মানুষগণ কি গেম খেলে না তাদেরকে টাকার প্রয়োজন নেই মানছি তারা একটু ধ্বনি প্রকৃতির লোক কিন্তু এটিও ভুলে গেলে চলবে না সেইসব দেশে যারা গেম খেলে তাদের ভিডিওতে যে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয় গেমের উপর সেখান থেকে কিন্তু  বেশি টাকা উপার্জন করা যাবে যেটা অন্য দেশ থেকে সম্ভব না ।

জনপ্রিয় গেম কিভাবে পাব ?


বিশ্ববাজারে যদি এখন জনপ্রিয় গেম গুলোর কথা উঠে আসে বা কাউকে যদি জিজ্ঞেস করেন তাহলে সবার প্রথমে চলে আসবে দুটি নাম সেটি হল ফ্রী ফায়ার কিংবা পাবজি কথা । এই দুটি গেম বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে যেমন গুগল-ফেসবুক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে পুরো পৃথিবী জুড়ে ঠিক ইনকাম করার ক্ষেত্রে ওইভাবেই পাবজি ফ্রী ফায়ার আলোড়ন সৃষ্টি করেছে গেম জগতে ।


ইন্ডিয়া থেকে কি এই গেমগলো খেলা যাবে ?


ইউটিউব ঘাটলে দেখা যায় বিভিন্ন ইন্ডিয়ান চ্যানেল রয়েছে যারা কিনা ফ্রী ফায়ার পাবজি খেলে থাকেন অর্থ উপার্জন করে থাকেন অনেক পরিমাণে টাকা । আশা করা যায় তারা যদি খেলতে পারে ফ্রী ফায়ার পাপজির মত গেমগুলো তাহলে আপনিও খেলতে পারবেনা ।


কিভাবে গেম খেলব ?


যারা গেম খেলে থাকেন তাদেরকে জিজ্ঞেস করলে যে তুমি গেম কিভাবে খেলতে শিখেছ বেশিরভাগ মানুষই উত্তর দিয়ে থাকেন শখের বশে খেলতে খেলতে কিভাবে গেম লেভেল বারাতে হয় খেলে খেলে এগুলো শিখে ফেলেছি এরকমটা উত্তর দিয়ে থাকে । তবে এখন আধুনিক যুগে আপনার কারো কাছে যেতে হবে না আপনি যদি গেম খেলতে না পারেন ইউটিউবে গিয়ে সার্চ করুন হাউ টু গেম তাহলে দেখবেন অনেক ভিডিও চলে আসবে কিভাবে গেম গুলো খেলতে হয় ।


গেম খেলে কি সারাজীবন ইনকাম করতে পারব ?


ভবিষ্যতের কথা আল্লাহ ও আল্লাহর রাসূল ছাড়া আর কেউ বলতে পারে না আমিও পারিনা তবে এটা আপনাদের বলে দিতে প্রায়ই পারি সেটা হল গেমের বাজার যেহেতু অনেক বিশাল সেজন্য গেম খেলা আসলে সারা জীবনই চলবে যেহেতু গেম খেলা সারাজীবন থাকবে সেহেতু ইনকাম ও সারা জীবন হবে ।


গেম খেলে মাসে কত টাকা আয় করতে পারবো ?



দেখুন এই ব্যাপারে আসলে যার যার নিজের উপরে নির্ভর করে যে সে কত টাকা ইনকাম করতে পারবে গেম খেলে, কারণ আপনার গেম যত ভালোভাবে খেলতে পারবেন তত মানুষের মন জয় করতে পারবেন এজন্য ভালোভাবে গেম প্রথমে শিখে নিতে হবে এরপর যদি আপনি চিন্তা করেন যে আমি কত টাকা মাসে ইনকাম করতে পারব তাহলে একটি ধারণা দিতে পারি মোটামুটি মানের একজন গেইমার প্রতিমাসে 4 থেকে 5 লক্ষ টাকা ইনকাম করে থাকে ।


কিভাবে গেম খেলে টাকা ইনকাম করব?


গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অনেক মাধ্যম রয়েছে আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল খোলেন সেই চ্যানেলে যদি আপনি গেম খেলে সে গেমগুলোকে স্ক্রিন রেকর্ডার দিয়ে ভিডিও করে ইউটিউব চ্যানেলে ছাড়েন কিংবা ফেসবুক পেজে ছাড়েন তাহলে কিন্তু অনেক টাকা ইনকাম করা সম্ভব এটা করে বেশিরভাগ মানুষ অনলাইন থেকে গেম খেলে টাকা উপার্জন করে নিচ্ছে । এটা ছাড়াও আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম হলো স্পন্সর পেলে তো আরো বেশি টাকা উপার্জন করতে পারবেন যদি আপনার চ্যানেল টি বড় হয় তখন দেখবেন অনেক স্পন্সার আপনার চ্যানেলে চলে আসবে অটোমেটিকলি ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ