Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

সকল প্রবাসীর পরিবারকে সরকার দিবে সারা জীবন ৪৫০০ টাকা ফ্রিতে নগদে দিবে

বলা হয়ে থাকে গার্মেন্ট শিল্পের পর বাংলাদেশের সবচাইতে রেমিটেন্স আয়ের মাধ্যম হচ্ছে প্রবাসীরা অর্থাৎ বাইরে থেকে যেই পরিমাণ রেমিটেন্স আসে সেগুলো দিয়েই কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের বড় একটি অংশ চলে আসে আয়ের এই সংবাদটি আমরা হয়তোবা অনেকেই জানি তবে মাঝখানে অনেক দুই নাম্বারের কারণে সরকার হারাচ্ছিল তাদের প্রাপ্য ট্যাক্সের টাকা।





সকল প্রবাসীর পরিবারকে সরকার দিবে সারা জীবন ৪৫০০ টাকা ফ্রিতে নগদে দিবে





কারণ এরকম শোনা যাচ্ছিল বৈধ পথে যে পরিমাণ বিদেশি ভাই ও বোনদের রেমিটেন্স দেশে আসে তার থেকেও বেশি টাকা হুন্ডির মাধ্যমে দেশে আসে আর যে কারণে সরকার বঞ্চিত হয় বড় অংকের টেক্সের এছাড়াও আরো নানা ধরনের সুবিধা থেকে আরেকটি বড় যে সমস্যাটি হয়ে থাকে সেটা হল সরকার সংকটে পড়ে পর্যাপ্ত পরিমাণ ডলার রিজার্ভের সংকটে।

অনেক সময় আমরা দেখতে পেয়েছি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন আমরা করুনা কালীন সময়েও দেখতে পেয়েছি তখন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ২৫০০ টাকা করেও কিন্তু অনুদান দেওয়া হয়েছিল দুঃখী মানুষদের জন্য যে টাকাগুলো অনেকেই পেয়েছেন বিকাশ ও নগদ কিংবা অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে।






তবে এর আগেও কিন্তু এরকম রেমিটেন্স বোনাস বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়ে থাকতো অর্থাৎ 2.5% পর্যন্ত রেমিটেন্স বোনাস দিয়ে আসছিল বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে অর্থাৎ আপনি যদি এক লক্ষ টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠাতেন বিদেশ থেকে তাহলে পাওয়া যেত 1 লক্ষ 2500 টাকা।

তবে এবার এগিয়ে এসেছে এই কার্যক্রমে সিটি ব্যাংক আমেরিকান প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে পরিচালনা করে আসছে অনেক বছর ধরেই যার নাম হচ্ছে সিটি ব্যাংক এই সিটি ব্যাংকের উদ্যোগে কিন্তু এখন নতুন আরেকটি উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে অর্থাৎ বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে 2.5% রেমিটেন্স বোনাস আর সিটি ব্যাংকের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে এক্সট্রা ২ পার্সেন্ট রেমিটেন্স বোনাস অর্থাৎ মোট এখন পাওয়া যাবে ৪.৫০ রেমিটেন্স বোনাস অর্থাৎ আপনি যে কোন দেশ থেকে এক লক্ষ টাকা পাঠালে সিটি ব্যাংকের মাধ্যমে তাহলে আপনি পেয়ে যাবেন এক লক্ষ ৪৫০০ টাকা।

তবে এই সুবিধা গুলো এখন আপাতত মালোসিয়ান প্রবাসীরা পেয়ে থাকবেন অর্থাৎ সিবিএল মানি ট্রান্সফারের সার্ভিসের মাধ্যমে যদি সিটি ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা পাঠানো হয় তাহলে এই বাড়তি ৪.৫০% রেমিটেন্স বোনাস পাওয়া যাবে। 

তবে আরেকটি বিষয় গুরুত্বসহকারে নিতে হবে এই রেমিটেন্স বোনাস পেতে হলে অবশ্যই সিটি ব্যাংকের নতুন সিটি রেমিট অ্যাপটির মাধ্যমে আপনারা টাকা দেশে পাঠালে কেবল এই রেমিটেন্স বোনাস পাওয়া যাবে এই অ্যাপটি আপনারা প্লে স্টোর কিংবা এপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন google প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করার জন্য এখানে ক্লিক করুন ডাউনলোড করার পরে রেজিস্ট্রেশন করে নিন অবশ্যই সঠিক ডকুমেন্ট দিয়ে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট করতে হবে উদাহরণস্বরূপ হিসাবে বলতে গেলে বলা যায় পেপাল একাউন্ট আমরা যেভাবে খুলি কিংবা বিকাশ ও নগদ একাউন্ট আমরা যেভাবে খুলি ডকুমেন্ট দিয়ে ঠিক ওইভাবে করে এই সিটি রেমিট অ্যাপটিতে একাউন্ট ক্রিয়েট করে নিতে হবে।

মনে রাখবেন সঠিক নিয়মে যদি প্রবাসী ভাই ও বোনেরা বাংলাদেশে টাকা পাঠান তাহলে আপনাদের পরিবার পেয়ে যাবে ৪.৫% পর্যন্ত রেমিটেন্স বোনাস যেটা আগামীতে আরও বাড়তে পারে।

এই অ্যাপটির কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে বাংলাদেশ সরকারের পারমিশনের ভিত্তিতে সিটি ব্যাংকের উদ্যোগে আপাতত এটি মামলশিয়ান প্রবাসীরা এই সুবিধাগুলো উপভোগ করতে পারবেন তবে আস্তে আস্তে করে অন্য দেশিদের জন্য এই সুবিধাগুলো উন্মুক্ত করা হবে বলে জানা গেছে এ নিয়ে যদি আপনাদের কোন মতামত থাকে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিবেন এবং আর্টিকেলটি সবাই ফেসবুকে শেয়ার করে দিন যাতে সবাই জানতে পারে।


আপনি যদি এই সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান ভিডিও দেখার মাধ্যমে তাহলে এখানে ক্লিক করে দেখে নিন ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিওটি।


আজকের আর্টিকেলটি তৈরি করা হয়েছে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিরতে

Post a Comment

0 Comments