Ticker

6/recent/ticker-posts

Dream touch way | ড্রিম টাচ ওয়ে অ্যাপ থেকে প্রতিদিন 1000 টাকা ইনকাম

 bangladeshi app per day 1000 taka income payment bkash


টাকা টাকা টাকা শুধুই যেন চারে দিকে তাকালো রজগার ছাড়া আর কোন কিছু যেন চলেই না এরকম একটা অবস্থা লক্ষ করলে দেখা যায় ঠিকই তো বাঁচতে হলে আল্লায় দিলে টাকার প্রয়োজন আছে কিংবা মরে গেলও টাকার প্রয়োজন আছে কারণ জানাজার কাপড় কিনতে টাকা প্রয়োজন হয় । (ড্রিম টাচ ওয়ে)

প্রতিদিন আমরা টাকা উপার্জনের জন্য কত কিছুই না করে থাকি এদিক সেদিক ঘোরাফেরা করি ওখানে এখানে চলে যাই টাকা রোজগারের জন্য কিন্তু লক্ষ্য যদি অসৎ থাকে টাকা ইনকাম হবে খুব সহজে তাও আবার হাতের স্মার্টফোনটি দিয়ে কি বিশ্বাস হচ্ছে না তো চলুন আমরা আগে বাড়ি ।

আজকে আপনাদের মাঝে এরকম একটি অনলাইন ইনকাম কোম্পানির নিয়ে রিভিউ করতে চলে আসলাম যে কোম্পানিতে রয়েছে ইনকাম অ্যাপ্লিকেশন সাথে রয়েছে ইনকাম ওয়েবসাইট তো বুঝতেই পারতেছেন কোম্পানিটির ভিতরে আপনি চাইলে দুই রকম ভাবে কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন

কিভাবে আপনারা এই ওয়েবসাইটটিতে বা এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে একাউন্ট খোলবেন কাজ করবেন পেমেন্ট নেবেন সবকিছুই আজকের আর্টিকেল থেকে আপনারা পূর্ণাঙ্গ ধারণা পেয়ে জাবেন ইন শা আল্লাহ এই জন্য সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার অনুরোধ রইল ।



Dream touch way | ড্রিম টাচ ওয়ে অ্যাপ থেকে প্রতিদিন 1000 টাকা ইনকাম



নতুন ইনকাম অ্যাপ টির নাম কি?



এই কোম্পানিটি চালু হয়েছে 2021 সালে এটি পরিচালনা হচ্ছে সরাসরি বাংলাদেশ থেকে যদিও এটি বিশ্বব্যাপী অনেক ক্ষেত্রে কাজ করে থাকে আবার কিছু ক্ষেত্রে আগামীতে কাজ করবে এজন্য আপডেট চলতেছে ।  এই কোম্পানির অ্যাপ্লিকেশন কিংবা ওয়েবসাইটের নাম হচ্ছে ড্রিম টাচ ওয়ে এই কোম্পানির ওয়েবসাইট গুগলে সার্চ করলে পাওয়া যাচ্ছে কিংবা প্লে স্টোরে গিয়ে সার্চ করলেই এই কোম্পানির ওয়েবসাইটটিও এভেলেবেল ভাবে পাওয়া যাচ্ছে ।


ড্রিম টাচ ওয়ে অ্যাপ্লিকেশন এ কিভাবে কাজ করতে হবে?


ড্রিম টাচ ওয়ে
 কোম্পানিতে অনেক রকম ভাবে কাজ করা যায় তবে সবচাইতে জনপ্রিয় বেশ কিছু কাজের মধ্যে রয়েছে মোবাইল রিচার্জ করিয়ে দিয়ে টাকা ইনকাম, শপিং করিয়ে দিয়ে টাকা ইনকাম, নিজে শপিং করে টাকা ইনকাম, নিজের কোন প্রোডাক্ট থাকলে সেগুলো কে সল দিয়ে টাকা ইনকাম, বিমানের টিকেট, গাড়ির টিকেট
 বিক্রি করে টাকা ইনকাম অথবা নিজে কিনে ইনকাম । ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম বিজ্ঞাপন দেখে টাকা ইনকাম ইত্যাদি ইত্যাদি এছাড়াও আরো এই কোম্পানিতে পাওয়া যাবে ভিন্ন সময় কোম্পানির পক্ষ থেকে রিওয়ার্ড বোনাস ।


ড্রিম টাচ ওয়ে অ্যাপ থেকে পেমেন্ট পাওয়ার উপায়?


যদি আপনি বাংলাদেশের নাগরিক হোন তাহলে পেমেন্ট নিতে পারবেন লোকাল কারেন্সি তে যেমন বিকাশ নগদ উপায় অ্যাপ্লিকেশনগুলোর মাধ্যমে সাথে ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে পেমেন্ট নেওয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে আর যদি আপনি ইন্ডিয়ান হন তাহলে রয়েছে পেটিএম অন্যান্য দেশী ভাইদের জন্য রয়েছে পেপাল পেওনিয়ার ইত্যাদি । তবে মনে রাখা জরুরী কোম্পানিটি যেহেতু নতুন এসেছে অনেক কিছুই এখন পর্যন্ত এড হয়নি আস্তে আস্তে করে যোগ করে দেওয়া হচ্ছে ।


এখানে কি সবাই কাজ করতে পারবে?


আপনি জেনে হয়তোবা খুশি হবেন এই কোম্পানিতে কাজ করতে তেমন একটা শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন নেই হাতে যদি একটি স্মার্টফোন থাকে কিংবা ল্যাপটপ কম্পিউটার থাকে ইন্টারনেট কানেকশনের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে এই কোম্পানিতে কাজ করে অথ বা টাকা উপার্জন করে নিতে পারবেন । এখানে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই যে কেউ চাইলেই এ কোম্পানিতে কাজ করে সঠিকভাবে নিয়ম মেনে টাকা উপার্জন করতে পারবে এতে কোনো প্রবলেম নেই ।


ড্রিম টাচ থেকে দিনে কত টাকা উপার্জন করা যাবে?



এই বিষয়টা নির্ভর করে থাকে নিজের কাজের দক্ষতার উপরে আপনি যত পরিমাণে পরিশ্রম করবেন নিয়ম মেনে কাজ করবেন অথবা আপনার টিম যত পরিমাণে বড় করতে পারবেন ততই আপনার টাকা উপার্জন বেশি হবে এই কোম্পানিতে রয়েছে 10 জেনারেশন পর্যন্ত রেফার কমিশন পাওয়ার বিশেষ ব্যবস্থা যেখান থেকে হিউজ পরিমাণ টাকা উপার্জন করার সুযোগ রয়েছে ।

তবে মনে রাখবেন দুই নাম্বারি করে যদি আপনি কাজ করে এখান থেকে টাকা উপার্জন করতে চান তাহলে এটা হবে বোকার স্বর্গে বাস করা কারণ এখানে সঠিক নিয়ম মেনে কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে হবে ।


এখানে কি সব কাজ ফ্রিতে করা যাবে ?


এটি অবশ্য একটি আনন্দের বিষয় যে এই কোম্পানিতে আপনারা চাইলে যে কেউই সম্পূর্ণ ফ্রীতে একটি অ্যাকউন্ট ক্রিয়েট করতে পারবেন একাউন্ট খোলার জন্য এখানে প্রয়োজন হবে একটি মোবাইল নাম্বার এনআইডি কার্ড অনুযায়ী নাম এড্রেস সাথে একটি ইমেইল এর প্রয়োজন হবে তাহলে এখান থেকে আপনি অর্থ উপার্জন করার জন্য একটি সুন্দর একাউন্ট ক্রিয়েট করে নিতে পারবেন ।

তবে একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি রেফারেল কোড ব্যবহার করতে হবে এখানে ফ্রিতে অ্যাকাউন্ট খোলা গেলেও রেফারেল কোড ছাড়া একাউন্ট খোলা যায় না এই জন্য আপনাদেরকে অবশ্যই একটি নির্দিষ্ট রেফার কোড ব্যবহার করতে হবে আপনারা চাইলে এই 18002 রেফার কোড টি ব্যবহার করতে পারেন ।


একাউন্ট খোলার জন্য কি কোন ভিডিও রয়েছে?



ডিজিটাল বাংলা 360 কোম্পানি সব সময়ই তাদের ভিউয়ারদের সুবিধার কথা ভেবে কাজ করে যাচ্ছে আল্লাহ দিলে অবিরাম ডিজিটাল বাংলা 360 কোম্পানির ওয়েবসাইট এর পাশাপাশি রয়েছে ফেসবুক-ইউটিউব টিকটক ইনস্টাগ্রাম চ্যানেল যেখানে নিয়মিত ইনকাম রিলেটিভ ভিডিও দেওয়া হয়ে থাকে আপনারা চাইলে এখানে ক্লিক করে ইউটিউব থেকে ভিডিও টি দেখে নিতে পারেন কিভাবে ড্রিম টাচ ওয়ে কোম্পানিতে কাজ করার জন্য অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে হয় ।

ড্রিম টাচ ওয়ে কম্পানি নিয়ে আরও বিস্তারিত আগামীতে আসবে আজকে এটি হলো প্রথম পর্ব দ্বিতীয় পর্ব টি দেখার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন ।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ