Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

কপি পেস্ট কাজ করে মাসেে $500 মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সুযোগ

 বর্তমানে অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান না আসলে এরকম মানুষ খুঁজে পাওয়াটা খুবই মুশকিল যাদের হাতে একটি স্মার্টফোন রয়েছে হোক সেটা অ্যান্ড্রয়েড কিংবা আইফোন বেশিরভাগ মানুষই কিন্তু অনলাইন থেকে কাজ করে ইনকাম করার ইচ্ছা পোষণ বা চেষ্টা করে থাকেন এইজন্য বিশ্বের দুটি জনপ্রিয় অনলাইন প্লাটফর্ম গুগোল ও ইউটিউব এ সার্চ করে থাকেন বেশিরভাগ মানুষ গুলো এ বিষয়ে । 

এর ভিতর যদি লোকজন শোনেন অনলাইনে কপি পেস্ট কাজ করে ইনকাম করা যায় তাহলে তো কথাই নেই কিন্তু সব ইনকাম ওয়েবসাইটে কপি পেস্ট কাজ করে ইনকাম হাতে পাওয়া যায় কি ? প্রশ্নটা আপনাদের কাছে রইল চাইলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে বিষয়টি উপর ভিত্তি করে আপনাদের মতামত জানাতে পারেন । 

 যাই হক অনলাইন জগতে এরকম অনেক সাইট রয়েছে যারা কপি পেস্টের কাজ দিয়ে থাকেন কিন্তু সময়মতো পেমেন্ট করেন না, তবে আপনাদের মাঝে আজকে আমি যে সাইটটা রিভিউ দেওয়ার জন্য চলে আসলাম এটি বিশ্বের প্রথম সারির কোম্পানি গুলোর মত যেমন উদাহরণস্বরূপ বলা যায় গুগোল ফেসবুকের নাম বন্ধুরা জেনে খুশি হবেন যে এই ওয়েবসাইটটিতে সব ধরনের কাজ রয়েছে অর্থাৎ এই সাইটটি all-in-one বলতাছেন কোম্পানির পক্ষ থেকে ও অনেক টেকনিশিয়ানরাও  এটি সাথে একমত হয়েছেন । একমত হওয়ারও কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে । যেমন এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি কপি পেস্ট করে খুব সহজে মোবাইল কম্পিউটার ল্যাপটপ দিয়েও ইনকাম করতে পারবেন পাশাপাশি চাইলে যে কেউ ফ্রিল্যান্সিং বা আউটসোসি কাজ করতে পারবেন এবং অ্যামাজনের মতো ডিজিটাল মার্কেটিং করে ও ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রি করে ইনকাম করতে পারবেন আরো রয়েছে ফাইবার যেরকম একটি ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সেরা প্লাটফর্ম ঠিক ওরকমই কিন্তু এখানে কাজ করতে পারবেন সবাই খুশির বিষয় হচ্ছে নতুনরাও এ সুবিধা পাবেন । তো বুঝতেই পারছেন all-in-one সাইটটা বলাতে কোন ভুল হয়নি ।


কপি পেস্ট কাজ করে মাসেে $500 মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সুযোগ



কপি পেস্ট কাজ করে কিভাবে ইনকাম করবো ?


কপি পেস্ট কাজ বলা হয়েছে বিদয় যে আপনি অন্যের পোস্ট কপি করে এনে আপনার একাউন্টে পোস্ট করে দিবেন এমন টা কিন্তু কখনোই হবে না বা করা যাবে না । এমন টা করলে আপনার ইনকাম হবে না । এখন আপনাদের অনেকের মাঝে প্রশ্ন হতে পারে তাহলে কপি পেস্ট কাজ কিভাবে হল ? এটার সহজ উত্তর হচ্ছে আপনি আমি যেরকম ফেসবুকে টুইটারে যেভাবে পোস্ট করে থাকি স্ট্যাটাস আপলোড করে থাকি ঠিক ওই একই কাজটা আমরা যদি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে করি তাহলে আমাদের একটি ইনকাম হয়ে যাবে এটি হলো সোশ্যাল মিডিয়া গুলো থেকে ওয়েব টক দিচ্ছে সবাইকে বাড়তি সুবিধা । ওয়েবসাইটের অ্যাড্রেস নাম হচ্ছে webtalk dot co এ সাইট টা সম্পর্কে আগেই বলেছি ইনকাম ওয়েবসাইটটা যেহেতু গুগোল ফেসবুকের মত বড় কোম্পানি সেহেতু কিন্তু সকলের বিশ্বাস অর্জন করাটা তেমন কোন কঠিন বিষয় নয় ওয়েব টকের পক্ষে । গুগলক বা ফেসবুকে মানুষ কেন বিশ্বাস করেন ? কারণ গুগলে বা ফেসবুকে যদি মানুষ কাজ করে বা আমরা কাজ করি তাহলে আমাদের টেনশন থাকে না আল্লাহ দিলে প্রতি মাসের শেষের দিকে পেমেন্টটা ঠিকই ব্যাংক একাউন্টে চলে আসবে এই জন্য । গুগল-ফেসবুক কখনো কারো সাথে প্রতারণা করে না । তেমনি প্রথম শাড়ি কোম্পানিগুলোর মতনই ওয়েব টক এর অবস্থান হতে যাচ্ছে বা অনেকটা অবস্থান করে নিয়েছে ওয়েব টক ওয়েবসাইটটি তাই আপনারা চাইলে ওয়েব টক এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফেসবুকের মত কপিপেস্ট কাজ করে অর্থাৎ পোস্ট করে লাইক দিয়ে শেয়ার করে ইনকাম করতে পারবেন । তবে কিছু নিয়মাবলী কিন্তু অবশ্যই মানতেই হবে তা না হলে ইনকাম হবে না বিস্তারিত আপনাদের মাঝে নিচে তুলে ধরা হলো যেমন আপনি যদি কোনো ইউনিক পোস্ট করেন সেটার জন্য আপনি একটা পয়েন্ট পাবেন, আপনি যদি একটা স্টাটাস আপনার একাউন্টে পোস্ট করেন সেখান থেকে একটা পয়েন্ট পাবেন । সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে আপনার পোস্ট করা ছবি হোক কিংবা স্টাটাস হোক যেটাই হোক না কেন সেখানে যদি আপনার ফ্রেন্ড বা অন্য পাবলিক যদি লাইক করে শেয়ার করে কমেন্ট করে আপনার পোস্টের ভিতরে তাহলেও ইনকাম পয়েন্ট পাবেন যেটা আমরা ফেসবুক থেকে পাই না । এই পয়েন্টটা ভাঙ্গিয়ে পরবর্তীতে ডলারে কনভার্ট করে পেমেন্ট নেওয়া যাবে । তবে মনে রাখবেন বেশি লাইক কমেন্ট শেয়ার পাওয়ার আশায় অশ্লীল কিছু করা যাবে না, যদি করেন তাহলে একাউন্ট ব্যান করে দেবে কর্তৃপক্ষ ।

ওয়েব থেকে কি রেফার কমিশন পাওয়া যাবে ?


এখন পর্যন্ত আমার জানামতে যতগুলো জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে কোনোটা থেকেও রেফার কমিশন পাওয়া যায় না । তবে বন্ধুগণ আপনারা জেনে খুশি হবেন ওয়েব টকে রয়েছে 5 লেভেল পর্যন্ত রেফার কমিশন পাওয়ার বিশেষ সুবিধা অর্থাৎ পাঁচ লেভেল পর্যন্ত রেফার কমিশন পাওয়া যাবে এবং এই 5 লেভেলে যত খুশি ততো রেফার করা যাবে যাকে আনলিমিটেড বলাও যায় ।


ওয়েব টকে কি ফ্রিতে কাজ করা যায় ?


জি দর্শক বন্ধুরা আপনারা ওয়েব টক এ ফ্রিতে অ্যাকাউন্ট খুলে ফ্রিতে ইনকাম করতে পারবেন তবে ওয়েব টকে রয়েছে দুটি ইনকাম ভাষণ একটি হলো ফ্রী ভার্শন আরেকটি হলো প্রিমিয়াম ভার্শন একটু ক্লিয়ার করে বলতে গেলে ওয়েব টকে ফ্রিতোও কাজ করা যায় এবং আইডি একটিভ করেও কাজ করা যায় তবে ফ্রিতে একাউন্ট খুলে ফ্রিতে কাজ করলে ইনকাম টা একটু কম হবে আইডি একটিভ করে কাজ করলে ইনকাম বেশি হবে আশা করি বিষয়টা ক্লিয়ার ।


ওয়েব টকে প্রিমিয়াম ভার্শন এ কি কি ধরনের সুবিধা পাওয়া যাবে ?


ওয়েব টকে আপনি যদি প্রিমিয়াম ভাষণ গ্রহণ করেন তাহলে ইনকাম টা যেরকম কয়েক গুণ বেড়ে যাবে পাশাপাশি আপনি যে রেফার গুলো করবেন সেখান থেকে একটা রেফার কমিশন পাবেন 5 লেভেল পর্যন্ত । এবং ফ্রিতে অ্যাকাউন্ট খুলে যারা রেফার করতে চাইবেন তারাও রেফার করতে পারবেন ফ্রি একাউন্টের মাধ্যমে কিন্তু যখন নিজের আইডিটি অ্যাকটিভ করবেন তখন রেফার কমিশন পাবেন । তবে ফ্রি মেম্বাররা নিজে নিজে যে ইনকামটা করবেন সেটা ঠিকই নিজের একাউন্টে সাথে সাথে জমা হয়ে যাবে । 


ওয়েব টক ওয়েবসাইট থেকে পেমেন্ট নেওয়া যাবে কিভাবে ?


পেমেন্ট নেওয়ার জন্য বেশকিছু মাধ্যম রয়েছে এর ভিতরে উল্লেখযোগ্য হলো মাস্টার কার্ড ভিসা কার্ড পেওনিয়ার পেপাল কয়েনবেস ব্যাংক টেনাসফার । সব দেশে যদিও সব কারেন্সি বা পেমেন্ট মেথড গুলো কাজ করে না । সেহেতু আবার অনেকে টেনশনে পড়ে যেতে পারেন এজন্য বিষয়টা ক্লিয়ার করে দেওয়া ভালো কয়েন বেচে এ বিটকয়েন সহ অন্যান্য কারেন্সিগুলো রয়েছে সেহেতু পেমেন্ট নেওয়ার জন্য খুব একটা কষ্ট করতে হবে না কারণ কয়েনবেস মোটামুটি বেশিরভাগ দেশগুলোতে সাপোর্টার হিসেবে রয়েছে ।


ওয়েব টক কোন দেশি কোম্পানি ?


বন্ধুরা লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন বড় বড় সোশ্যাল মিডিয়াগুলি কিন্তু রয়েছে ইউএসএ দখলে ওয়েব টক এর বেলাও কিন্তু ব্যতিক্রম নয় কারণ ওয়েব টক কোম্পানিটিও ইউএসএ'র অর্থাৎ আমেরিকার থেকে পরিচালিত হয়ে আসছে ।


ওয়েব টকএ ফ্রিল্যান্সিং কাজ করব কিভাবে ?


ফ্রিল্যান্সিংয়ের কথা আসলেই সবার আগে চলে আসে ফ্রিল্যান্সিং ডটকম ফাইবার পিপল পার আওয়ার মতো বড়-বড় মার্কেটপ্লেসগুলোর কথা । এক্ষেত্রে ওয়েব টপ ওয়েবসাইটটিও কিন্তু পিছিয়ে নেই অর্থাৎ ওয়েব কর্তৃপক্ষ বলেছেন এই বড় বড় ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলোর মত তাদের ওয়েবসাইটে ব্যবস্থা থাকবে যাতে করে ফ্রিল্যান্সাররা কাজ করতে পারেন এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে । এখানে একটু বাড়তি সুবিধা পাবেন বিশেষ করে যারা নতুনরা রয়েছেন ।


ওয়েব টক থেকে ডিজিটাল মার্কেটিং করে কিভাবে ইনকাম করবো ?


ডিজিটাল মার্কেটিং কিংবা এফিলিয়েট মার্কেটিং এর কথা শুনলেই চলে আসে সবার আগে আলীএক্সপ্রেস ও আমাজন কারণ এ দুটি কোম্পানি মাতাচ্ছেন প্রায় সারা পৃথিবী । সবার জন্য সুখবর হচ্ছে ওয়েব টকে থাকছে ডিজিটাল মার্কেটিং করে ও ডিজিটালভাবে নিজের প্রোডাক্ট বিক্রি করে ইনকাম করার সুব্যবস্থা ঠিক এই দুটি বড় ই-কমার্স সাইট গুলোর মত ।



ওয়েব টকের কি নিজস্ব ক্রিপ্টো কারেন্সি রয়েছে ?


ডিজিটাল এই পৃথিবীতে এখন ডিজিটাল কারেন্সি ছাড়া যেন আমাদের চলতে চায় না এমন একটা অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে । যেহেতু এই কাজগুলোর ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে বা ডিজিটাল ভাবে করতে হবে সেহেতু ডিজিটাল কারেন্সি কথা ভাবাটাই স্বাভাবিক । যখন থেকেই বিটকয়েন জনপ্রিয়তা পেয়েছে সারা পৃথিবী জুড়ে তখন থেকে ডিজিটাল কারেন্সি উপরে মানুষের একটা আস্থা তৈরি হয়ে গেছে বা ভালোবাসা তৈরি হয়ে গেছে সেই জনপ্রিয়তার দৌড়ে এখন প্রায় প্রত্যেকটা বড় বড় কোম্পানি নিজস্ব ক্রিপ্টোকারেন্সি থাকুক এটা প্রায় সকল কোম্পানিই চায় যেমন ফেসবুকও কিন্তু তাদের নিজস্ব ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে আসতে যাচ্ছে শোনা যাচ্ছে চলতি বছরই । এতক্ষণে হয়তো বা অনেকে বিষয়টা অনেকখানি বুঝতে পেরে গেছেন জি বন্ধুরা ওয়েব টকও নিজস্ব ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে আস্তে আছে  অতি শিগ্রই ।


ওয়েব থেকে সর্বনিম্ন কত ডলার হলে উঠানো যায় ?


বড় বড় অনলাইন প্লাটফর্ম গুগোল বেশিরভাগই 100 ডলার কিংবা তার বেশি হলেই গ্রাহকের সেটআপ করা পেমেন্ট মেথড গুলোতে পাঠিয়ে দিয়ে থাকে অটোমেটিকলি অর্থাৎ গুগোল ফেসবুকে কাজ করলে যখন নিজের একাউন্টে 100 ডলার বা তার বেশি হয়ে যায় তখনই অটোমেটিকলি সেটআপ করা পেমেন্ট মেথড গুলোতে চলে আসে বলতে গেলে ইউটিউব ফেসবুক পাঠিয়ে দিয়ে থাকে । ঠিক ওরকমই ওয়েব টকে যখন 100 ডলার কিংবা তারও বেশি হয়ে যায় তখন অটোমেটিকলি মাস শেষে একাউন্টে চলে আসে দেশ অনুযায়ী লোকাল কারেন্সি হিসেবে ।


ওয়েব টক এ কিভাবে একাউন্ট খুলব ও কাজ করব ?


দর্শক বন্ধুরা আর্টিকেল এর শুরুতে বলেছিলাম এখানে ফ্রি তে যেহেতু কাজ করার অপশনটি রয়েছে তাই আপনারা চাইলে ঠিক ফেসবুকের মতোই এখান থেকে নিজে নিজে একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন তবে । ওয়েব টকে রেফার লিংক ছাড়া কখনো একাউন্ট খোলা যায় না । এই জন্য কারো না কারো রেফার লিংকে অবশ্যই জয়েন হতে হবে । কিভাবে একাউন্ট খুলবেন এটা জানার জন্য অবশ্যই আপনারা চাইলে এখানে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন । এবং ওয়েব টক ওয়েবসাইট এ কিভাবে কাজ করতে হয় সেগুলো নিয়ে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও রয়েছে চাইলে এখানে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন । ওই ভিডিওর ডেসক্রিপশন বক্সে একাউন্ট খোলার জন্য রেফার লিংক দেওয়া আছে চাইলে আপনারা আমার রেফার লিংক এ জয়েন হতে পারেন ।


ওয়েব টক সম্পর্কে আপনার বা আপনাদের যদি কোন মতামত থাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন পরবর্তীতে সলিউশন দেওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ ।

Post a Comment

1 Comments