Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধা | ক্রেডিট কার্ড কি ভাবে পাবো | ক্রেডিট কার্ড কি?

 ক্রেডিট কার্ড কি?



দৈনন্দিন জীবনের আর্থিক লেনদেনের জন্য ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার কমবেশি সকলেই করে থাকে । তবে বর্তমান সময়ে আমরা প্রায় প্রতিটি মানুষের মধ্যেই ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করার আগ্রহ খুঁজে পাই । বর্তমান যুগ হচ্ছে ডিজিটাল এখন প্রযুক্তির হাত ধরে প্রায় প্রতিটি কাজ খুব সহজেই অল্প সময়ের মধ্যে করা যায় । ( ক্রেডিট কার্ড কী? )


তাহলে টাকা লেনদেনের পদ্ধতি কেন পিছিয়ে থাকবে । আর্থিক লেনদেন এবং টাকা উত্তোলন পদ্ধতি বর্তমান সময়ে অনেকটাই সহজ । প্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে এখন আপনি টাকা গুনা থেকে শুরু করে টাকা লেনদেনের মাধ্যমগুলোতে অনেকটাই উন্নতির ছোঁয়া দেখতে পাবেন । ( প্রিমিয়ার ব্যাংক ক্রেডিট কার্ড )


আবার অনেকেই রয়েছে যারা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে টাকা লেনদেন করে থাকে । এটি কিন্তু খুবই ভাল একটি ব্যবস্থা । আপনি যদি স্বল্প সময়ের মধ্যে টাকা লেনদেন করতে চান অথবা সহজ পদ্ধতিতে টাকা লেনদেন করতে চান তাহলে আপনার জন্য ক্রেডিট কার্ড ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে । ( ক্রেডিট কার্ড থেকে বিকাশে টাকা আনার নিয়ম )


টাকা লেনদেন করার জন্য এটি খুবই একটি জনপ্রিয় মাধ্যম বর্তমান এই সময়ে । যারা বড় বিজনেসম্যান রয়েছে অথবা যাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে তারা কিন্তু ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করে থাকে । ( what is credit card number )


ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে আপনি কিন্তু চাইলেই যে কোন এটিএম বুথ অথবা মার্কেটপ্লেসে টাকা লেনদেন করতে পারবেন তার কারণ হলো বর্তমান সময়ে টাকা লেনদেন করার জন্য অনেকে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে থাকে যার কারণে মার্কেটপ্লেসগুলোর লেনদেন করার জন্য অবশ্যই ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করার সুযোগ রেখে থাকে । ( what is debit card )


এটি একটি খুবই জনপ্রিয় মাধ্যম বিশেষ করে টাকা লেনদেন করার জন্য । আমরা যারা পূর্বে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করেছি তারা হয়তো ক্রেডিট কার্ড এর ব্যবহারের বিভিন্ন রকম সুবিধা সম্পর্কে জানি । আর যারা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেনি তারাও যে জানে না এমনটা কিন্তু নয় কারণ বর্তমান সময়ে তারাও কিন্তু কমবেশি ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার দেখতে পেয়ে থাকে ‌‌। ( How to use credit card )


ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধা | ক্রেডিট কার্ড কি ভাবে পাবো | ক্রেডিট কার্ড কি?



ক্রেডিট কার্ড কি ?


ক্রেডিট কার্ড হল লেনদেন করার জন্য একটি বিশেষ কার্ড যেটি মূলত প্লাস্টিকের আবরণ দ্বারা তৈরি । আমরা আগেই জেনেছি যে ক্রেডিট কার্ড এর মূল উদ্দেশ্য হলো লেনদেন করা । ক্রেডিট কার্ড এর আকৃতি এবং গঠন অনেকটা এনআইডি কার্ডের মতই । সাধারণত স্থানীয় ব্যাংক গুলো তাদের গ্রাহকদের কাছে এই কার্ডটি ইস্যু করে থাকে বিভিন্ন ধরনের লেনদেন করার জন্য । বিভিন্ন ধরনের বিল এবং লেনদেন করা যাবে ক্রেডিট কার্ড এর মাধ্যমে । ( ক্রেডিট কার্ড কিভাবে কাজ করে )


সহজ কথায় বলতে গেলে ক্রেডিট কার্ড হচ্ছে এমন একটি মেথড যার মাধ্যমে আপনি লেনদেনের পাশাপাশি ব্যাংক থেকে টাকা ধার করতে পারবেন । আপনি যে ব্যাংকে থেকে ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করেছেন সে ব্যাংকের পলিসির মাধ্যমে আপনি সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন লোন নিতে পারবেন । যেসব মার্কেটপ্লেসে ক্রেডিট কার্ড এলাও করে থাকে আপনি কিন্তু সেসব মার্কেটপ্লেসে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন সম্পন্ন করতে 
পারবেন । ( ক্রেডিট কার্ড বলতে কি বুঝায় )


ক্রেডিট কার্ড সাধারণত অনলাইন এবং অফলাইন দুই জায়গাতেই লেনদেন সম্পন্ন করতে সক্ষম । এখানে একটি কথা আমরা অনেকেই বুঝি না আর সেটি হলো যেমন ধরুন আপনার কাছে একটি ক্রেডিট কার্ড রয়েছে এবং সেখানেই টাকাও রয়েছে এখন আপনি অন্যান্য দেশে কিন্তু ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন না । ( how to identify credit card and debit card )


সেক্ষেত্রে আপনাকে আপনি যে দেশে যেতে চান সে দেশের মুদ্রা ট্রানজেকশন করে নিতে হবে এবং এর জন্য প্রয়োজন হবে একটি আন্তর্জাতিক পাসপোর্ট । একটি বিষয় মনে রাখবেন এই ট্রানজেকশন করানোর জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি আন্তর্জাতিক পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হয়ে থাকবে । ট্রানজেকশন করার পর আপনি কিন্তু যে কোন দেশের পেমেন্ট পদ্ধতিতে আপনার ক্রেডিট কার্ডটি ব্যবহার করতে পারবেন । এটাকে ডুয়েল কারেনসি করে নিতে হবে । ( credit card uses )


এখানে একটি প্রশ্ন সকলেরই জানা প্রয়োজন আর সেটি হল ক্রেডিট কার্ড এর অর্থ কি । ক্রেডিট একটি ইংরেজী শব্দ যার বাংলা প্রতিশব্দ হলো ঋণ । অর্থাৎ আপনি যেকোন ব্যাংক অথবা প্রতিষ্ঠান থেকে কার্ডের মাধ্যমে যে টাকাটা নিবেন একটি নির্দিষ্ট সময় পর সেটি আবার পরিশোধ করে দিবেন এটাকেই মূলত ক্রেডিট কার্ড বলা হয়ে থাকে । ( ক্রেডিট কার্ড এর অর্থ কি )


ক্রেডিট কার্ড এর উৎপত্তি এবং তাৎপর্য 

প্রথমবারের মতো পৃথিবীতে ক্রেডিট কার্ড উদ্ভাবন  করেন আমেরিকান লেখক রাজনীতিবীদ এডোয়ার্ড বেলামি । দ্যা ডাইনাস ক্লাবের হাত ধরে হাত ধরে মার্কেটে প্রথমবারের মতো ক্রেডিট কার্ড উৎপত্তি লাভ করে এবং আস্তে আস্তে পরবর্তীতে সকলের মাঝে বিস্তার লাভ করে । পৃথিবীতে সর্বপ্রথম 1950 সাল থেকে ক্রেডিট কার্ডের প্রচলন শুরু হয় তবে প্রচলন শুরু হওয়ার সাথে সাথেই কিন্তু বাংলাদেশের পথযাত্রা শুরু হয়নি । 1997 সালে সর্বপ্রথম বাংলাদেশে ক্রেডিট কার্ড এর প্রচলন শুরু হয় । ( ইন্টারনেটে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের জন্য কি প্রয়োজন )



যে কথাটি না বললেই নয় এখন কিন্তু আপনি চাইলেই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন না । ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার জন্য আপনাকে যে কোন ব্যাংকের সাথে সংযুক্ত থাকতে হবে । যদি আপনি ব্যাংকের সঙ্গে যুক্ত না থাকেন তাহলে কিন্তু আপনারা ক্রেডিট কার্ড পাবেন না । ( how to use credit card online )


 যদি আপনি ব্যাংক ছাড়া আলাদা কোন কোম্পানির আন্ডারে থেকে ক্রেডিট কার্ড বের করতে পারেন তাহলে সেটি আলাদা বিষয় । তবে সব থেকে বেশি সুবিধা হয়় ক্রেডিট কার্ড থাকে তাহলে আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা খরচ করতে পারবেন । যদি ব্যাংক আপনাকে যোগ্য মনে করে ক্রেডিট কার্ড প্রদান করে তাহলে আপনি নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারবেন । ( how to use credit card online )



কারা পাবে ক্রেডিট কার্ড ?


লেনদেন করার জন্য আপনার হয়তো ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার আগ্রহ থাকতেই পারে এটা অস্বাভাবিক এর কিছু নয় । এখন কথা হল আপনি কিন্তু চাইলেই ক্রেডিট কার্ড পাবেন না যেটা আমরা পূর্বে বলেছি । ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার জন্য আপনার এবিলিটি প্রয়োজন । অর্থাৎ আপনি যদি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে না পারেন তাহলে আপনি ক্রেডিট কার্ড কিভাবে পাবেন  ‌। ( কাদের জন্য ক্রেডিট কার্ড )



 যদি আপনি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে সফল হয়ে থাকেন অথবা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার সামর্থ্য আপনার থেকে থাকে তাহলে কিন্তু আপনি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন তবে একটি শর্ত হলো তারাই কেবল ক্রেডিট কার্ড পাবে যাদের একটি স্থিতি ইনকাম সোর্স রয়েছে । ( Credit cards for 
whom )


অর্থাৎ কোন ব্যাংক অথবা কোম্পানির মাধ্যমে আপনার যদি আপনার ইনকাম সোর্স দেখাতে পারেন তাহলে আপনি ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত । সেটা হোক কোন চাকরি থেকে বেতনের ইনকাম সোর্স অথবা কোন ব্যবসা থেকে ইনকাম করার রাস্তা । মূলকথা হলো আপনাকে ইনকাম করার স্থায়ী সহজ প্রমাণ করতে পারলেই হবে । ( ক্রেডিট কার্ড কাদের জন্য )



ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার জন্য কি কি প্রয়োজন ?


বিভিন্ন ধরনের ব্যাংক প্রতিষ্ঠান এবং ফ্রিল্যান্সিং প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেগুলো থেকে আপনি আপনার ইনকাম সোর্স দেখিয়ে ক্রেডিট কার্ড গ্রহণ করতে পারবেন তবে এজন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় কিছু জিনিস পত্র জমা দিতে হবে সেগুলো নিম্নে আলোচনা করা হল : ( ক্রেডিট কার্ড খরচ )

  • এনআইডি কার্ড অথবা জাতীয় পরিচয় পত্র
  •  সার্টিফিকেট
  •  যদি আপনি একজন চাকরিজীবী হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার জন্য অবশ্য অ্যাপোয়েন্টমেন্ট লেটার প্রদান করতে হবে ।
  •  ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে ট্রেড লাইসেন্সে ।
  •  আপনি যদি ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে ইনকাম সোর্স প্রয়োজন হবে । 


তবে এখানে একটি কথা বলে রাখা ভালো চাকরিজীবী এবং ব্যবসায়ী অথবা ফ্রিল্যান্সার হলেই হবে না আপনার মাসিক উপার্জন মোটামুটি ভালো হতে হবে । আপনার মাসিক ইনকাম 30 হাজার টাকার উপরে থাকতে হবে । এছাড়াও আপনি যখন কোন ব্যাংকের আন্ডার থেকে ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করাতে চান তখন কিন্তু আপনাকে অবশ্যই ওই ব্যাংকের দেওয়া নির্দিষ্ট পলিসি মেনে কাগজপত্র জমা দিয়ে ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে । ব্যাংক গুলো বিভিন্ন ধরনের ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করে থাকে যেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু ক্রেডিট কার্ডের ক্যাটাগরি হলো : ( স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড কি )

  • ইনফিনিট ক্রেডিট কার্ড 
  • ক্লাসিক ক্রেডিট কার্ড 
  • গোল্ড ক্রেডিট কার্ড 
  •  প্লাটিনাম ক্রেডিট কার্ড 


উল্লেখিত ক্যাটাগরি ছাড়াও বিভিন্ন ব্যাংকে আপনি বিভিন্ন ধরনের ক্রেডিট কার্ডের ক্যাটাগরি পেয়ে যাবেন তবে আপনি সেখান থেকে আপনার সুবিধামতো ক্রেডিট কার্ড বেছে নিতে পারেন । তবে প্লাটিনাম ক্যাটাগরির ক্রেডিট কার্ডটি পাওয়ার জন্য আপনাকে সর্বনিম্ন 15 এবং সর্বোচ্চ 45 দিন অপেক্ষা করতে হবে । 
what is need by using credit card )



ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা


ক্রেডিট কার্ড এর বিভিন্ন ধরনের সুযোগ রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম একটি সুবিধা হলো আপনি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই লেনদেন সম্পন্ন করতে পারবেন ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে । অপরদিকে নগদ অর্থ বহন করার প্রয়োজনীয়তা সকলেরই রয়েছে কিন্তু আমাদের দেশে বিশেষ করে নগদ অর্থ বহন করা কতটা নিরাপদ নয় ।
The advantage of credit card 



এক্ষেত্রে হারিয়ে যাওয়ার অনেক সম্ভাবনা রয়েছে । কিন্তু আপনার সাথে যদি ক্রেডিট কার্ড থাকে তাহলে  ক্রেডিট কার্ড এর ভেতরে থাকা অর্থ অথবা টাকা অনেকেই নিরাপদে থাকে যার কারণে আমাদেরকে হারিয়ে যাওয়ার টেনশন দূর হয়ে যায় । এখন অনেকের মনে প্রশ্ন হতে পারে যে ভাই যদি আমাদের ক্রেডিট কার্ড হারিয়ে যায় ‌‌। ( how do payments on a credit card work )


এই বিষয়ে দুশ্চিন্তা করার কোন কারণ নেই কারণ যদি আপনার কার্ড হারিয়ে যায় তাহলে কিন্তু আপনার অর্থ নিরাপদ এবং পরবর্তীতে আপনি অন্য একটি ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করে নিতে পারবেন যার সাথে আপনি আপনার টাকা পেয়ে যাবেন । তবে আপনার ক্রেডিট কার্ডটি যদি হারিয়ে যায় তাহলে আপনাকে সাথে সাথেই প্রোপাইটার এর কাছে তথ্যটি জানাতে হবে । ( how to use credit card first time )


অনেক ব্যাংক কোম্পানি হয়েছে যারা কিনা সুদবিহীন ঋণ দিয়ে থাকে অর্থাৎ আপনি যেকোনো ব্যাঙ্ক থেকে টাকা নিয়ে খরচ করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে সেগুলো শোধ করে দিবে নাকি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এজন্য তাদেরকে কোন সুদ দিতে হবে না । যদি আপনি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে টাকাটি পরিশোধ করতে না পারেন তাহলে কিন্তু আপনাকে জরিমানা গুনতে হবে । ( types of credit card )



এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করলে কিছু টাকা ক্যাশব্যাক করে দেয় অর্থাৎ আপনি কোন রেস্টুরেন্ট অথবা প্রতিষ্ঠান কিছু কেনাকাটা করলেন সেগুলোর পেমেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে আপনি পে করলেন । ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে বিল পে করার কারণে আপনি কিছু টাকা ক্যাশব্যাক পেয়ে যাবেন । ( ক্রেডিট কার্ড লোন )


ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার আরও একটি অন্যতম সুবিধা হল আপনি যদি নিয়মিত ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে কেনাকাটা করেন এবং ব্যাংক থেকে যে লোনটা সেগুলো যদি নিয়মিত এবং একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পরিশোধ করতে পারেন তাহলে কিন্তু আপনার ক্রেডিট কার্ডের স্কোর অনেকটা বেড়ে যায় । ( how to increase credit card limit sbi )



এই ক্রেডিট কার্ডের স্কোর দিয়ে আপনি কিন্তু পরবর্তী সময় আপনার ক্রেডিট কার্ডের লিমিট বাড়িয়ে নিতে পারবেন । এছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে ।
how to increase credit card limit chase )



ক্রেডিট কার্ডের অসুবিধা


ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের আমরা বিভিন্ন রকম সুবিধা দেখতে পেলাম কিন্তু ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে কেবলমাত্র সুবিধা ভোগ করা যাবে এমনটা কিন্তু নয় সুবিধার পাশাপাশি আমরা কিন্তু বেশ কিছু অসুবিধা দেখতে পেয়ে যাই । ( The advantage of credit card )


সকলের জন্য ক্রেডিট কার্ড মাধ্যমটি টাকা উত্তোলনের জন্য সহজ নাও হতে পারে তার কারণ হলো যেহেতু ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে প্রযুক্তি ব্যবহার করে টাকা উত্তোলন করতে হয় । এক্ষেত্রে অনেক এ কিভাবে টাকা উত্তোলন করতে হবে সে বিষয়ে কোনো ধারনাই রাখেনা আর তাদের জন্যই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করা অনেকটাই ঝামেলা মনে হয়ে থাকে । তবে একটি কথা জানিয়ে রাখি আপনি বিকাশের মাধ্যমে ও ক্রেডিট কার্ড থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন । ( what is an advantage of using a credit card quizlet )


অপরদিকে ক্রেডিট কার্ড মানে ব্যাংক থেকে লোন নেওয়ার সুযোগ । ব্যাংক থেকে কিন্তু আপনাকে এমনি এমনিতেই ক্রেডিট কার্ডের লোন দিবে না তারা একটি নির্দিষ্ট ইন্টারেস্ট এর উপর ভিত্তি করে আপনাকে লোন দিবে । যেগুলো পরবর্তী সময় আপনাকে সুদে-আসলে পরিশোধ করতে হবে । এখন কথা হচ্ছে এই ব্যবস্থাটি অনেকের কাছে কঠিন মনে হতে পারে এবং অনেকের রয়েছে সাধ্যের বাইরে । ( ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের অসুবিধা )


বাৎসরিক ফি বাদেও ক্রেডিট কার্ডের আর এক্সট্রা কিছু খরচ রয়েছে যেগুলো হলো ব্যালেন্স ট্রান্সফার ফি , লেট ফি , ট্রানজেকশন ফি ছাড়াও আরো অনেক কিছু । এখন আমদের অনেকেই লেট ফি বলতে কি বুঝায় এ বিষয়ে একটি প্রশ্ন থাকতে পারে । যেমন ধরেন আপনি ব্যাংক থেকে এটা হতে পারে যে কোন ব্যাংক একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ঋণ নিলেন কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের ভেতর আপনি তাদের ঋণ পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনাকে লেট ফি নামক এক্সট্রা ফি প্রদান করতে হবে । ( ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার সময় কি কি সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে )

সর্বশেষ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা আপনি যদি ভেবে থাকেন একটি ক্রেডিট কার্ড নিবেন সেটা অন্যায় কিছু নয় তবে যে ব্যাংক থেকে কিংবা যে প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রেডিট কার্ড নিবেন ভাবছেন সেই প্রতিষ্ঠান থেকে জেনে নিবেন যে তাদের শর্ত গুলো কি রয়েছে কারণ ক্রেডিট কার্ড যেসব কোম্পানিগুলো দিয়ে থাকে তারা কিন্তু হিডেন অনেক কিছু রেখে দেয় অর্থাৎ গোপন হিসেবে কিছু চার্জ রেখে দেয় যেগুলো পরবর্তী সময় পরিশোধ করতে হয় বাধ্যতামূলকভাবে এইজন্য যদি আপনি ক্রেডিট কার্ড নিতে চান তাহলে অবশ্যই এই বিষয়গুলো জেনে নিবেন অন্যথায় আপনাকে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতে পারে । (ক্রেডিট কার্ড নেওয়ার ক্ষেত্রেে শর্ত কি)

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ