Ticker

6/recent/ticker-posts

Ads

অনলাইন থেকে প্রতিদিন ৫০০ টাকা করে সাহায্য নিন-Charity donation app

দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজ কর্মে বা জীবন যাপনের জন্য আমাদের টাকার প্রয়োজন হয়ে থাকে । প্রতিটা মানুষের জীবনযাপন এক নয় । যার কাছে টাকা রয়েছে তার জীবনযাপন কিন্তু অনেকটাই উন্নত । অনেক মানুষ রয়েছে তাদের জীবন যাপনের অবস্থা খুবই দুরবস্থা । তার কারণ হলো তাদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা নেই । অনেকেই তাদের জীবন যাপন চালিয়ে যায় ভিক্ষার মাধ্যমে আবার অনেকেই রয়েছে যারা অন্যের কাছে হাত পাততে পারে না , লজ্জার কারণে । আর তাদের জন্য কিন্তু বেশ কিছু বড় বড় কোম্পানি রয়েছে যারা গরীব দেশগুলোতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দুরবস্থায় অর্থ ডোনেট করে থাকে । এমনটা কিন্তু আমরা বর্তমান সময়ও একটা পেয়ে যাই যে একটি গরীব দেশে যখন দুরবস্থা বিরাজ করে তখন কিন্তু বড় বড় দেশগুলো গরিব দেশগুলোকে বিভিন্নভাবে অর্থ প্রদান করে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় । এই বিষয়গুলো আমাদের মাঝে প্রতিনিয়তই ঘটে চলেছে । তবে বর্তমান সময়ে এই ডোনেট করার পদ্ধতিও কিন্তু বদলে গেছে । বিভিন্ন কোম্পানি গুলো এখন ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে এই ডোনেট প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে । আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে ডিজিটাল বাজারে চলে আসলো ডিজিটাল ডোনেট কোম্পানি যেটার নাম MYUIB প্রজেক্ট । যে কোম্পানিটি গরিব  মানুষদের পাশে দাড়ানোর জন্য ডিজিটাল পদ্ধতি নিয়ে চলে এসেছে । আর এটাও ধারণা করা যায় এভাবে তারা ডোনেটের পাশাপাশি মার্কেটে নিজেদেরকে খুব ভালোভাবে পরিচিতি লাভ করাতে পারবে । বিভিন্ন বড় বড় কোম্পানিগুলো এখানে তাদের ডোনেট করবে এবং যেগুলো মাধ্যমে কোম্পানিটি গরীব মানুষদের পাশে দাঁড়াবে । এখন আমরা জেনে নেব কিভাবে এই কোম্পানিটির মাধ্যমেও আমরা এখানে মাইনিং এর মাধ্যমে ইনকাম করতে পারব তাদের কয়েনগুলো । সে বিষয়গুলো জানার পূর্বে আগেই জেনে নেওয়া যাক কোম্পানিটি সম্পর্কে । ( Donate to charity )


আপনি যদি ফ্রিতে ব্লগিং কিংবা অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে প্রতি মাসে ৫০০০০ থেকে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করে এই ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন 



অনলাইন থেকে প্রতিদিন ৫০০ টাকা করে সাহায্য নিন-Charity donation websites




MYUBI কোম্পানিটি কি ?


ডিজিটাল কারেন্সির বেশ কিছু জনপ্রিয় কোম্পানির সাথে আমরা সকলেই হয়তো কম বেশি জড়িত । আমরা অনেকেই হয়তো সাতোশি কোর কয়েন , পাই নেটওয়ার্ক , বিএনবি কয়েন ছাড়াও আরো অন্যান্য জনপ্রিয় কোম্পানির নাম শুনেছি আবার অনেকেই সেখান থেকে ইনকাম করতে যাচ্ছি । সহজ কথায় যদি বলতে হয় সেই জনপ্রিয় মাই নেই ডিজিটাল কারেন্সি কোম্পানিগুলোর মতোই জনপ্রিয় আরো একটি কোম্পানি হল MYUBI কোম্পানিটি । আশা করি আমরা সকলেই হয়তো বিষয়টি ক্লিয়ার ভাবে বুঝতে পেরেছি । কোম্পানিটি একটি লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য নিয়ে মার্কেটে এসেছে আর সেই উদ্দেশ্যটি আমরা তাদের হোয়াটপেপার এর মাধ্যমে জানতে পেরেছি , বিশ্বব্যাপী যে দারিদ্রতা বা অভাব অনটন রয়েছে সেগুলোর বিরুদ্ধে যেন রুখে দাঁড়ানো যায় এবং বিশ্বব্যাপী মানুষজন তাদের কোম্পানিতে কাজ করে ইনকামের মাধ্যমে দারিদ্রতা যাতে নিরসন হয় । কোম্পানিটির যে ফিউচার প্ল্যান রয়েছে সেটা কিন্তু বাস্তবায়ন হতে পারে যদি কোম্পানিটি মার্কেটে চলে আসে । আর এক্ষেত্রে কিন্তু সাধারণ মানুষের পাশাপাশি প্রতিটা দেশের অর্থনৈতিক চাকাও সচল হয়ে উঠবে । বিশ্বজুড়ে এমন একটি পদক্ষেপ নেয়ার জন্য কোম্পানিটির জনপ্রিয়তা অর্জন করতে বেশি দিন সময় লাগবে না বলে ধারণা করা যাচ্ছে এই মুহূর্তে । কোম্পানিটির যে নিজস্ব কয়েন রয়েছে সেটার নাম দেওয়া হয়েছে MYG । পৃথিবী জুড়ে প্রায় প্রতিটা দেশের মানুষ এই কোম্পানিতে কাজ করতে পারবে বলে কোম্পানিটির নাম দেওয়া হয়েছে Universal Best Income যেটাকে সংক্ষেপে UBI বলা হয়ে থাকে ‌। এখন কিন্তু আমরা মোটামুটি একটি ধারণা পেয়ে গেলাম যে এই কোম্পানির প্রসারতা কেমন হতে পারে । এছাড়াও টুইটারে কোম্পানিটির অফিসিয়াল পেইজ রয়েছে আপনারা চাইলে সেখান থেকেও আরো তথ্য জেনে নিতে পারেন । ( Universal basic income )

মাইনিং এর মাধ্যমে কিভাবে ফ্রিতে ইনকাম করা যাবে ?

ডিজিটাল কারেন্সির রিলেটিভ কোম্পানিগুলোতে সম্পূর্ণ ফ্রিতে মাইনিং অপশনটি দেওয়া হয়ে থাকে বলে অনেক মানুষ এখানে কাজ করার আগ্রহ খুঁজে পেয়ে থাকে । আর সেগুলোর মত MYUBI কোম্পানিটিও কিন্তু এখানে সম্পূর্ণ ফ্রিতে মাইনিং অপশনটি চালু করে রেখেছে । মাইনিং এর মাধ্যমে সম্পূর্ণ ফ্রিতে আপনারা কিন্তু আপনারা তাদের কয়টি ইনকাম করে নিতে পারবেন । এছাড়াও মাইনে করার জন্য আপনাদেরকে কিন্তু অনেকটা পরিশ্রম করতে হবে এমনটা কিন্তু নয় । প্রতিদিন বা ২৪ ঘন্টা পর পর একবার মাইনিং করার সুযোগ রয়েছে । সফটওয়্যার বা অ্যাপ্লিকেশনটিতে লগ ইন হওয়ার পর আপনারা ডেইলি বোনাস হিসেবে মাইনিং অপশনটি পেয়ে যাবেন , সেখানে ২৪ ঘন্টা পর পর ক্লেইম নামক অপশনে ক্লিক করে আপনার বোনাসটি ইনকাম করে নিতে পারবেন । প্রতিবার মাইনিং করার বিনিময়ে আপনারা কিন্তু 9.92 MYG কয়েন ইনকাম করে নিতে পারবেন এবং ভবিষ্যতে এর পরিমাণ কোম্পানিটি চাইলে বাড়াতেও পারে আবার কমাতেও পারে ‌। ডিজিটাল কারেন্সির বেশ কিছু কোম্পানি রয়েছে যারা রেফারেল এর মাধ্যমেও ইনকাম করার সুযোগ দিয়ে থাকে আবার কিছু কিছু কোম্পানি রয়েছে যারা রেফার অপশনটির মাধ্যমে ইনকাম করার সুযোগটি রাখে না । আরেকটি বিষয় মনে রাখবেন মাইনিং করার পূর্বে আপনাদেরকে একটি অ্যাক্টিভ মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করে নিতে হবে । এই কোম্পানিটি কিন্তু রেফারের মাধ্যমে ইনকাম করার সুবিধাটি দেয়নি । তবে ভবিষ্যতে চাইলে কোম্পানিটি কিন্তু রেফারের মাধ্যমে ইনকাম করার অপশনটি চালু করতে পারে । এপ্লিকেশনটিতে আমরা একটি অ্যাপস দেখতে পারবো যেটা MYUIB কোম্পানির নিজস্ব একটি অ্যাপস । সেখানে সাইনআপ করার মাধ্যমে আমরা নির্দিষ্ট পরিমাণ মাইনিং কয়েন ইনকাম করে নিতে পারব । রেফারেল অপশনটি না থাকার কারণে আমরা সেখান থেকে বাড়তি কয়েন ইনকাম করতে পারছিনা তবে আগামীতে কোম্পানিতে যদি রেফারেন্সের মাধ্যমে ইনকাম করার সুযোগটি দিয়ে দেয় তাহলে তাদের জনপ্রিয়তার পাশাপাশি আমরা ফ্রিতেও কিছু কয়েন ইনকাম করে নিতে পারব । তবে এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে কোম্পানির উপর । ( MYUBI মাইনিং করে ইনকাম )

MYUIB কোম্পানির ভবিষ্যৎ কেমন হতে পারে ?

ডিজিটাল কারেন্সির কোন কোম্পানি যখন মার্কেটে নতুন আসে তখন কিন্তু সেটিকে আমরা গ্যারান্টি সহকারে গ্রহণ করে নিতে পারি না । তার কারণ হলো দেখা গেল কোম্পানিটি সম্পর্কে ভালো-মন্দ না জেনেই সেখানে নিয়মিত কাজ করে গেলাম এবং একটা সময় কোম্পানিটি স্ক্যাম করে চলে গেল তাহলে কিন্তু সেখানে পরিশ্রমের পাশাপাশি আমাদের মূল্যবান সময়গুলো বৃথা গেল । কিন্তু বর্তমান সময়ে ডিজিটাল কারেন্সির মাধ্যমে অনেকেই অনেক কোম্পানি থেকে ইনকাম করে নিয়েছে । তাছাড়া বিটকয়েন এবং ইথেরিয়াম এর মত জনপ্রিয় ডিজিটাল কারেন্সি গুলো মার্কেটপ্লেসজুড়ে অনেকটা জায়গা দখল করে রয়েছে । এছাড়াও তাদের জনপ্রিয়তা কিন্তু এখন বর্তমান সময় আকাশ ছোঁয়া । এক্ষেত্রে কিন্তু অনেকটা জোর দিয়ে বলা যেতে পারে ডিজিটাল কারেন্সির প্রতিটা কোম্পানির যে স্ক্যাম করবে এমনটা কিন্তু নয় । বেশ কিছু কম্পানি রয়েছে যেগুলো তাদের প্রজেক্ট গুলোকে এমনভাবে সাজায় যে যেগুলো দেখেই যে কারো ধারণা হতে পারে কোম্পানিটি মার্কেটে জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারবে এবং এর কয়েন গুলোর ভ্যালু অনেক ভালো হবে । MYUIB কোম্পানিটি যে পদক্ষেপ এবং ফিউচার প্লেন নিয়ে মার্কেটপ্লেসে আসতে চলেছে সে ক্ষেত্রে বলা যেতে পারে কোম্পানিটির পরিচিতি লাভ করতে বেশি সময় লাগবে না এবং এর নিজস্ব যে কয়েন রয়েছে সেগুলোর একটি ভালো ভ্যালু থাকবে । (best crypto crowdfunding platforms)

MYG কয়েনের মূল্য কত হতে পারে ?

MYUIB কোম্পানিতে কাজ করার বিনিময়ে আমরা কি পরিমাণ ইনকাম করতে পারব সে বিষয়ে একটি প্রশ্ন কিন্তু অনেকের কাছেই থাকতে পারে ? সম্পূর্ণ ফ্রিতে মাইনিং এর মাধ্যমে যে কয়েনগুলো ইনকাম করতে পারবো সেগুলো থেকে আমরা কি পরিমান প্রফিট পেতে পারি । যে কোম্পানি গুলো মাইনিং করার বিনিময়ে কম পরিমাণে কয়েন দিয়ে থাকে সে কয়েন গুলোর ভালো ভ্যালো থাকে । MYG প্রতিটি কয়েনের সমপরিমাণ মূল্য রয়েছে 0.50$ করে । আগামীতে এই কয়েনের মূল্য বাড়তেও পারে আবার কমে যেতেও পারে । মনে করেন মাইনিং এর মাধ্যমে আপনি 10,000 MYG কয়েন ইনকাম করলেন । এবং সে সময়েই কোম্পানিটি মার্কেটে চলে এসে তাদের ব্যবসা চালু করলো ঠিক তখনই কিন্তু আপনি এই কয়েন গুলোর মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন । সে ক্ষেত্রে আপনার প্রফিট হতে পারে 10,000×0.50$ = 5,000 ডলার । বাংলা টাকায় এটার পরিমাণ চলে আসে 500,000 টাকা । আবার দেখা গেল প্রতিটা কয়েনের মূল্য এক ডলার সমপরিমাণ হয়ে গেল দাম বেরে ঠিক তখন কিন্তু আপনার ইনকাম আরো বেরে যাবে । আশা করি বিষয়গুলো আপনারা বুঝতে পেরেছেন । তবে একটি কথা ঠান্ডা মাথায় জেনে রাখুন যে পর্যন্ত কোম্পানিটি তাদের পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম চালু না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত কিন্তু আপনাদেরকে অপেক্ষা চালিয়ে কাজ করে যেতে হবে । তাহলেই কিন্তু আপনারা এখান থেকে ভালো কিছু আশা করতে পারবেন । ( MYUBI Coin Price )

কিভাবে একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে ?

কোম্পানিটিতে কাজ করার জন্য এবং ইনকাম করার জন্য সেখানে প্রথমেই আপনাদেরকে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে । এইজন্য আমাদেরকে সর্বপ্রথম অ্যাপ্লিকেশনটি ইনস্টল করতে হবে । অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করার পর সেখানে আপনারা দেখতে পারবেন ক্রিয়েট এন্ড একাউন্ট নামক অপশন । আরেকটা বিষয় মনে রাখবেন এই সাইটটিতে ভিজিট করার জন্য আপনাদেরকে গুগল ব্রাউজার ওপেন করতে হবে । আপনারা যারা মেটামাস্ক কিংবা ট্রাস্টেড ওয়ালেটে অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন তাদের জন্য হয়তো এই বিষয়গুলো অনেক সহজ বলে মনে হবে । তবে যারা একেবারে নতুন তারা কিন্তু এখানে একটি ভুল করার সম্ভাবনা রয়েছে আর সেটি আপনাদের মাঝে তুলে ধরা যাক । এপ্লিকেশনটিটে ঢোকার পরে আপনাদেরকে আলাদা আলাদা কিছু শব্দ নাম্বারিং সহ দেওয়া হবে । আপনারা সেগুলো পাওয়া মাত্রই সে দিকে সর্বপ্রথম স্ক্রিনশট নিয়ে নিবেন বা নোট করে নিবেন এটা কিন্তু করতে ভুলবেন না । এবং একটু এগুলোই দেখতে পাবেন আপনাকে যে তথ্যগুলো বা শব্দগুলো প্রথমে দেওয়া হয়েছিল সেগুলো এলোমেলোভাবে সাজানো রয়েছে আপনাকে সেগুলো ধাপে ধাপে সাজাতে হবে ঠিক সেম ভাবে তারা প্রথমবার আপনাকে যেভাবে দিয়েছিল । তবে এক্ষেত্রে আপনারা যেখানে নোট করে রেখেছিলেন বা স্ক্রিনশট করে রেখেছিলেন সেখান থেকে দেখে দেখে খুব সহজেই দিয়ে দিতে পারবেন আশা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন । তবে আরও একটি বিষয় আপনাদেরকে বলে রাখি আপনাদেরকে যে প্রাইভেট Key গুলো দেওয়া হবে সেগুলো যদি আপনারা হারিয়ে ফেলেন তাহলে কিন্তু পরবর্তী সময়ে আপনারা অ্যাপ্লিকেশনটিতে লগইন করতে পারবেন না । এজন্য তথ্যগুলোকে আপনারা অবশ্যই যত্ন সহকারে রেখে দিবেন । এভাবে একাউন্ট তৈরি করার মাধ্যমে আপনি সেখানে কাজ করতে পারবেন এবং নিয়মিত কাজ করার ফলে একটা সময় পর এখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন । আপনারা কিভাবে অনলাইন থেকে খুব সহজেই ইনকাম করে নিতে পারবেন সম্পূর্ণ ফ্রিতে সেজন্য আমাদের ওয়েবসাইটটিতে নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন এবং উপরে যে কোম্পানিটি সম্পর্কে আলোচনা করা হলো সেটা আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে আপনার মূল্যবান মতামতটি কমেন্ট বক্সে একটি কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন । এপ্লিকেশন google প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করার জন্য এখানে ক্লিক করুন

Post a Comment

0 Comments